বাংলাদেশ প্রতিবেদক: কক্সবাজারের টেকনাফে সেন্টমার্টিন দ্বীপের অদূরবর্তী সাগরে মাছ ধরার ট্রলার থেকে সাড়ে চার লাখ ইয়াবাসহ মিয়ানমারের তিন নাগরিককে আটক করেছে কোস্টগার্ড। এ সময় মিয়ানমারের নগদ ৯ লাখ ৫১ হাজার কিয়াট ও ট্রলার জব্দ করা হয়।

সোমবার (৭ ডিসেম্বর) ভোরে টেকনাফের সেন্টমার্টিন ইউনিয়নের ছেঁড়া দ্বীপের অদূরবর্তী সাগরে এ অভিযান চালানো হয় বলে জানান কোস্টগার্ডের টেকনাফ স্টেশন ইনচার্জ লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আমিরুল হক।

তবে আটক মিয়ানমারের ৩ নাগরিকের নাম জানা সম্ভব হয়নি।

লে. কমান্ডার আমিরুল বলেন, সোমবার ভোরে সেন্টমার্টিনের অদূরবর্তী সাগর পথে মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান আসার খবরে কোস্টগার্ডের টেকনাফ ও সেন্টমার্টিন স্টেশনের একটি যৌথ দল অবস্থান নেয়। এক পর্যায়ে সেন্টমার্টিনের ছেঁড়া দ্বীপ থেকে ৫ নটিক্যাল মাইল দক্ষিণ সাগরে মিয়ানমার দিক থেকে জলসীমার শূন্যরেখা অতিক্রম করে সন্দেহজনক একটি ট্রলার আসতে দেখা যায়। কোস্টগার্ড সদস্যরা ট্রলারটিকে থামার জন্য নির্দেশ দেয়। এতে ট্রলারে থাকা লোকজন দ্রুত চালিয়ে পালানোর চেষ্টা করলে ধাওয়া দিয়ে জব্দ করতে সক্ষম হয়।

‘পরে ট্রলারে থাকা মিয়ানমারের ৩ নাগরিককে আটক করা হয়। ট্রলারটি তল্লাশি করে ৩ টি প্লাস্টিকের বস্তার ভিতরে বিশেষ কৌশলে লুকিয়ে রাখা অবস্থায় পাওয়া যায় ৪ লাখ ৫০ হাজার ইয়াবা ও মিয়ানমারের নগদ ৯ লাখ ৫১ হাজার কিয়াট।’

আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের বরাতে কোস্টগার্ডের এ স্টেশন ইনচার্জ বলেন, আটককৃতরা মিয়ানমারের নাগরিক। তারা দীর্ঘদিন ধরে সাগর পথে ইয়াবা পাচারে জড়িত।

আটককৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে টেকনাফ থানায় মামলা করা হয়েছে বলে জানান লে. কমান্ডার আমিরুল হক।