আরিফুর রহমান: ফুল,গাছ,পাখি এছাড়া ইংরেজী ও বাংলায় লেখা বিভিন্ন ধরনের ছন্দসহ মনের মাধুরী দিয়ে রাস্তায় আনমনে এঁকে চলেছেন আলপনা। আর এসব আঁকতে ও লিখতে কোন রং-তুলি নয় ব্যাবহার হচ্ছে রাস্তার পাশের থেকে কুড়ানো ইটের খোঁয়া,কঁচু পাতা,কয়লা এবং চক।
ময়লা লুঙ্গি,কাঁধে চাদর মধ্যবয়স্ক যুবকের বেশ-ভূষায় বুঝা যায় সে পাগল। তবে তার নাম যানতে চাইলে হাত দিয়ে চিত্রের উপরে এক কোণে দেখা যায় মোত্তাকিন লেখা।
মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার মজিদবাড়ি ভুরঘাটা বাজারে হঠাৎ করে এ দৃশ্য দেখতে ভিড় জমাচ্ছে উৎসাহী মানুষ। কারও সাথে সে কোন কথা বলছে না। তবে মাঝে মধ্যে কোন প্রশ্ন করলে ইঙ্গিতের মাধ্যমে বুঝায়।
রাস্তার পাশে তার নিজ হাতে আঁকা প্রতিভা চিত্র এবং তার মধ্যে কিছু কবিতার ভাষায় অসাধারন ছন্দ,সড়ক পথের সচেতনতা মূলক কথা লেখায় মুগ্ধ পথচারী ও স্থানীয় লোক জন। এসময় কেউ যদি খুশি হয়ে টাকা পঁয়সা দেয়,তাহলে তিনি গ্রহন করেন। অনেকে ছবি তুলে ফেসবুকে আপলড করছে। কেউ তুলছে সেলফি।
এ সময় স্থানীয় বাজারের মটরগ্যারেজ মালিক ইমান হোসেন জানান, সে এখানে বৃহস্পতিবার সকালের দিকে আসে। রাস্তার পাশ থেকে কঁচুপাতা,খোয়া,কয়লা,সংগ্রহ করে আঁকতে থাকে।