আরিফুর রহমান: মাদারীপুরের রাজৈরে শাহেদ বেগ (২৫) হত্যা মামলায় বুধবার দুপুরে দুই আসামিকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক লায়লাতুল ফেরদৌস। রায়ে মৃত্যুদন্ডের পাশাপাশি আসামিদের ৫০ হাজার টাকা করে অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন-রাজৈর উপজেলার হরিদাসদী-মহেন্দ্রদী ইউনিয়নের কালীবাড়ি গ্রামের ইউসুফ আলী মুন্সীর ছেলে মো. সেলিম মুন্সী ও একই গ্রামের আবুল কালাম আজাদের ছেলে মো. পাভেল শিকদার।
মামলার নথি সূত্রে জানা গেছে, নিহত শাহেদ বেগ লিবিয়া যাওয়ার জন্য সংগ্রহকৃত টাকাসহ রাজৈর উপজেলার বাটিয়ারকান্দা গ্রামে একটি বিয়ের বাড়িতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে ২০১২ সালের ২৯ নভেম্বর রাতে ঘর থেকে বের হন। পরেরদিন সকালে রাজৈর উপজেলার বাটিয়ারকান্দা গ্রামের খালের মধ্যে শাহেদের লাশ পাওয়া যায়। ওই ঘটনায় নিহতের বড় ভাই রফিকুল বেগ বাদী হয়ে রাজৈর থানায় ২০১২ সালের ১ ডিসেম্বর অজ্ঞাতনামা আসামি উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে পুলিশ তদন্তে শাহেদকে হত্যার সাথে আসামি পাভেল ও সেলিমের সম্পৃক্ততা পাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে চার্জশীট দাখিল করে।
নিহতের বড় ভাই মামলার বাদী রফিকুল বেগ বলেন, আমি মামলায় রায়ে খুশি। আমাদের দাবি পলাতক আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার করে ফাঁসির আদেশ কার্যকর করা হোক।
মাদারীপুরের অতিরিক্ত পিপি গোলাম আজম শামীম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে মামলাটি বিচারাধীন থাকার পর বুধবার দুপুরে আদালতের বিজ্ঞ বিচারক দুই আসামির ফাঁসির আদেশ এবং ৫০ হাজার টাকা করে অর্থদন্ডাদেশ প্রদান করেছেন। শাহেদ হত্যার সাথে জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তির আদেশ দিয়েছেন আদালত। আমরা সরকার পক্ষ এ রায়ে সন্তুষ্ট। দন্ড প্রাপ্ত দুই আসামি পলাতক রয়েছেন।