বাংলাদেশ প্রতিবেদক: পরকীয়ায় বাধা দেওয়া ও রাজি না হওয়াতে ৩ জনকে কুপিয়ে জখম করা পরানকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব। নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কারওয়ান বাজারের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব এ কথা জানায়।

র‍্যাব জানায়, ঘাতক পরান (৪২) দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী ইয়াসমিনকে (৩৫) পরকীয়ায় রাজি করাতে উত্যক্ত করছিলো। এ ঘটনায় পরানের রুমমেট বাবু পরানকে বাধা দেয় এবং বাড়িওয়ালাকে বিচার দিলে বাড়িওয়ালা ভাড়াটিয়া পরানকে বাসা ছাড়া করেন। সেই ক্ষোভ থেকে পরান বাবুকে হত্যার পরিকল্পনা করেন।

পূর্ব পরিকল্পনার অংশ হিসেবে রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় পরান চাপাতিসহ বাবুর উপর হামলা করতে আসেন। এলোপাথাড়ি কোপানোর এক পর্যায়ে ইয়াসমিন ও তার মেয়ে বাধা দিতে এলে পরান প্রথমে ইয়াসমিনের মাথায় চাপাতি দিয়ে কোপানো শুরু করেন। একই সময় ইয়াসমিনের নবম শ্রেণী পড়ুয়া মেয়ের হাতেও আঘাত করে পালিয়ে যান পরান।

এখন পর্যন্ত আহত বাবু ও ইয়াসমিন ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন আছেন।

তারা সবাই যাত্রাবাড়ির শনির আখড়া এলাকায় শেখদী নামক জায়গায় ভাড়া থাকেন।

Previous articleমিয়ানমারকে হুঁশিয়ারি দিল জাতিসংঘ
Next articleনাইকো দুর্নীতি: ৩৫ বার পেছাল অভিযোগ গঠনের শুনানি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।