এ.এস.লিমন: কুড়িগ্রামের রাজারহাটে মোঃ মাইদুল ইসলাম(৪০) নামের এক সেনাবাহিনীর ভূয়া মেজরকে গ্রেফতার করেছে রাজারহাট থানা পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে সেনাবাহিনীর ভূয়া আইডি কার্ডসহ প্রতারণার বিভিন্ন কাজগপত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

১৯ (ফেব্রুয়ারী) দিবাগত মাঝরাতে রাজারহাট উপজেলার ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউপির মুশরুত নাখেন্দা গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত মোঃ মাইদুল ইসলাম রাজারহাট উপজেলা মুসরুত নাখেন্দা গ্রামের মোঃ মকবুল হোসেনের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়,রাজারহাট উপজেলার ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউপির মুশরুত নাখেন্দা এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ওই ভূয়া মেজরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত মাইদুল ইসলাম নিজেকে সেনাবাহিনীর মেজর পরিচয় দিয়ে সেনাবাহিনীতে চাকুরী দেয়ার নামে কুমিল্লা জেলার এক যুবককের কাছ থেকে ৭ লাখ ৭০হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। সে সেনাবাহিনী বিজিবিসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকুরী দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন লোকজনের নিকট থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে আসছিল। এমনকি প্রতারণাকালে সে বিভিন্ন স্থানে নিজের ভিন্ন ভিন্ন পরিচয় দিত।

রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রাজু সরকার জানান, গ্রেফতারকৃত ভূয়া মেজর মোঃ মাঈদুল ইসলাম কুমিল্লা জেলার এক যুবককের কাছ থেকে সেনাবাহিনীতে চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণা করে ৭ লাখ ৭০হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়ার কথা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে। তার বিরুদ্ধে রাজারহাট থানায় মামলা দায়ের প্রস্ততি চলছে।