তাবারক হোসেন আজাদ: লক্ষ্মীপুর সদর ও কমলনগরে স্কুলছাত্রীসহ দুই কিশোরীকে পৃথক ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষণের অভিযোগে সংশ্লিষ্ট থানায় পৃথক দুটি মামলাও করা হয়েছে। এ দুই মামলার প্রধান অভিযুক্ত আসামি মেহেদী হাসান হৃদয় ও আকরাম হোসেন নামের দুই যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।
রোববার (২১ মার্চ) বিকালে লক্ষ্মীপুর আদালাতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। এর আগে ভুক্তভোগী দুই পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা করা হয়েছিলো।

লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার আটিয়াতলী গ্রামে বাবার অসুস্থতায় পরিবারের লোকজন হাসপাতালে ছিলেন। এ সুযোগে ঘরে একা পেয়ে শনিবার দিবাগত রাতে দশম শ্রেণির ছাত্রীকে স্থানীয় আবুল কালাম আজাদের ছেলে হৃদয় ধর্ষণ করেন। তখন ওই ছাত্রীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে, তাকে উদ্ধার করেন।

এরপর তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করান তারা।
এ ঘটনায় রবিবার সকালে ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে হৃদয়কে আসামী করে, সদর থানায় মামলা করেন। পুলিশ সকালে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠায়।

অপরদিকে, কমলনগর উপজেলার চর জাঙ্গালিয়া এলাকায় শনিবার রাতে ১৭ বছরের এক কিশোরীকে নিজ ঘরে ধর্ষণের অভিযোগ উঠে রামগতি উপজেলার আব্দুল বাতেনের ছেলে আকরাম হোসেনের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় রবিবার সকালে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। ভিকটিমকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে। এ তিনি কারাগারে।

লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার ড. এ এইচ এম কামরুজ্জামান জানান, পৃথক দুই কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা নেওয়া হয়েছে। দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে, আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মামলা দুটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে নিষ্পত্তি করা হবে।

Previous articleমাস্কের বিকল্প যখন গামছা!
Next articleঈশ্বরদীতে সড়ক দুর্ঘটনায় বাসের সুপার ভাইজার নিহত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।