আব্দুল লতিফ তালুকদার: একদিকে চরাঞ্চলে চলছে কৃষান-কৃষানির নানান কর্মযজ্ঞ, কেউ ডাল ফসল উত্তোলন করছে, কেউ ধান কাটছে, কেউ ধান মাড়াই ঝাড়াই করছে। অন্যদিকে বৃষ্টিপাত কম হওয়ায় আশানরূপ ফসল ওঠেনি কৃষকের ঘরে। রবি মৌসুমে সাধারণত দেশে বৃষ্টিপাত কম হয়ে থাকে। কিন্তু অন্যান্য বছরের তুলনায় এবছর একেবারই বৃষ্টি হয়নি। ফলে অনাবৃষ্টির কারনে কৃষি অঞ্চলক্ষেত টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরের যমুনার চরাঞ্চলের কৃষকদের স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে।

অনেক আশা করে রবি মৌসুমে রোপন/ বপন করেছিলেন বিভিন্ন প্রকারের বীজ। আশা করেছিল তিনমাস পরেই ঘরে তুলবেন সোনার ফসল। কিন্তু আশা নিরাশায় পরিণত হলো। এ মৌসুমে বৃষ্টিপাত না হওয়ায় আশানরূপ ফসল হয়নি। বিশেষ করে ডাল জাতীয় ফসল খেসারির ফলন কিছুটা হলেও একেবারেই ভালো হয়নি মসুরের ফলন। এছাড়াও বোরোধান, মসলাজাতীয় ফসলের আবাদও ভালো হয়নি। এদিকে বোরোধান ঘরে তুললেও চিটা হওয়ায় হতাশ কৃষক। এদিকে অন্যান্য বছর বাদামের বাম্পার ফলন হলেও এবার ফলন ভাল না হওয়ায় কৃষকের কপালে ভাজ পড়েছে। সরেজমিনে উপজেলার কালিপুর, কোনাবাড়ি, গোপারগঞ্জ, জয়পুর, রুলিপাড়া, খানুরবাড়ি ঘুরে কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা যায় হতাশার কথা। খানুরবাড়ি গ্রামের কৃষক শাহাদৎ হোসেন সাধু বলেন, এবারই প্রথম সাড়ে তিন বিঘা জমিতে বোরো ধান চাষ করেছিলাম কিন্তু অনাবৃষ্টির কারনে ভালো ফলন পায়নি। কালিপুর গ্রামের কৃষক আমির আলী বলেন, এবার পাঁচ বিঘা জমি বর্গা নিয়ে মসুর ও খেসারি ডাল বুনে ছিলাম কিন্তু বৃষ্টির কারনে ডাল একেবারেই ভালো হয়নি বিশেষ করে মসুর ক্ষেত পুড়ে গেছে। গত বছর বর্গা নিয়ে প্রায় এক লক্ষ টাকার ডাল বিক্রি করেছিলাম। কিন্তু এবার অনাবৃষ্টির কারনে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে গেলাম।

এবিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. রাসেল আল মামুন বলেন, এবার রবি মৌসুমে বৃষ্টিপাত না হওয়ায় মসুরের ফলন কম হলেও খেসারির ফলন ভালো হয়েছে। তবে গত বছর ডাল ফসলের ফলন ভালো হওয়ায় আবাদী জমির পরিমান বেড়েছে। এবার মসুর ২ হাজার ও খেসারি ২’শ হেক্টর জমিতে চাষ হয়েছে। এছাড়া ৭ হাজার ৯৮ হেক্টর জমিতে বোরা চাষ হয়েছে। তাছাড়া খড়ের দাম বেশি থাকায় দিনদিন বোরো চাষে কৃষকের আগ্রহ বাড়ছে।

Previous articleমাদারীপুরে ভূয়া নামধারী সেনাবাহিনীর মেজরসহ আটক ৩
Next articleমামুনুলের দ্বিতীয় স্ত্রী ঝর্না ‘নিখোঁজ’, ছেলের জিডি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।