আবু বক্কর সিদ্দিক: গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার কঞ্চিবাড়ি ইউনিয়নের উত্তর কালিরখামার গ্রামের এক বিধবাকে গভীর রাতে শয়ন ঘর থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগে খোরশেদ আলম (৪৫) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার ভোরে কঞ্চিবাড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোখলেছুর রহমান সরকার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে খোরশদ আলমকে গ্রেপ্তার করেন। খোরশেদ আলম ঐ গ্রামের মৃত আঃ জলিলের পুত্র। স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে উক্ত গ্রামের মৃত আঃ জলিলের ওয়ারিশগণের সঙ্গে মৃত রফিকুল ইসলামরে ওয়ারিশগণের জমি নিয়ে বিরোধ অতঃপর মামলা চলে আসছিল। এরই এক পর্যায়ে সোমবার দিনগত গভীর রাতে খোরশেদ আলম অন্য সহযোগীদের নিয়ে বিধবাকে তার শয়ন ঘর থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে পুকুর পাড়ে গণধর্ষণ করেছে মর্মে ঐ বিধবা অভিযোগ করেন। এ ঘটনায় অসুস্থ হয়ে বিধবা গাইবান্ধা সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কঞ্চিবাড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোখলেছুর রহমান সরকার জানান, মৃত রফিকুল ইসলামের স্ত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগে ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আসামীরা সকলেই একে অপরের স্বজন। এ মামলার ৬ আসামীর মধ্যে ১ জনকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়েছে। অপর ৫ আসামী পলাতক রয়েছেন। থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দল্লাহিল জামান বিধবাকে গণধর্ষণের মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত খোরশেদ আলমকে অদালতে পাঠানো হয়েছে। অপর ৫ আসামীকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Previous articleপাঁচবিবিতে ইয়াবা সেবনের দায়ে ২ নারী মাদকসেবীসহ আটক ৪
Next articleরাজারহাটে ২ কি. মি. জলাশয় খনন কাজের উদ্বোধন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।