বাংলাদেশ প্রতিবেদক: হবিগঞ্জের মাধবপুরে সৌদি আরব ফেরত ঘুমন্ত স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়েছে পাষণ্ড স্বামী।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টার দিকে উপজেলার বুল্লা ইউনিয়নের মাহমুদপুর গ্রামে এ নির্মম ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধূর নাম পারভীন আক্তার (৩৫)। তিনি মাহমুদপুর গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের মেয়ে।

জানা যায়, প্রায় ৭ বছর আগে পারভীনের সঙ্গে তার খালাতো ভাই পার্শ্ববর্তী নাসিরনগর উপজেলার চান্দেরপাড়া গ্রামের রেনু মিয়ার ছেলে তকদির হোসেন (৪০) এর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তকদির শ্বশুর বাড়িতে ঘর জামাই থাকতেন। এরই মধ্যে তাদের দুটি সন্তান জন্ম হয়। আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে কয়েক বছর আগে পারভিন সৌদি আরবে পাড়ি দেন। প্রায় দেড় মাস আগে পারভিন সৌদি আরব থেকে দেশে ফেরত আসেন। দেশে আসার পর স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই বাকবিতণ্ডা হতো।

মঙ্গলবার রাতে খাওয়া দাওয়া শেষে পারভিন তার দু সন্তান কে নিয়ে ঘরে ঘুমাতে যান। রাত প্রায় ১টার দিকে পাষণ্ড স্বামী তকদির হোসেন তার স্ত্রী পারভীনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে। পারভিনের শিশু বাচ্চাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে পারভীনের ক্ষতবিক্ষত মরদেহ দেখতে পায়। ঘটনা ঘটিয়ে পাষণ্ড স্বামী পালিয়ে যায়।

মাধবপুর থানার পরিদর্শক তদন্ত আমিনুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করেছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছেন।

Previous articleরাজশাহীতে পৌর মেয়রের বাড়ি থেকে অস্ত্র, মাদক ও কোটি টাকা জব্দ, স্ত্রীসহ গ্রেপ্তার ৩
Next articleসংক্রমণ ভয়াবহ আকারে ছড়িয়ে পড়েছে: কাদের
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।