বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালী সেনবাগে পুলিশ রাহেলা আক্তার কুসুম (৩২) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে। নিহত গৃহবধূর উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মহিদীপুর গ্রামের নুরুল হক মিস্ত্রী বাড়ির নুর মোহাম্মদের মেয়ে।

বুধবার (২৮ জুলাই) সকালে উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের মইজদীপুর গ্রাম থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত গৃহবধুর স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃত সাহাব উদ্দিন (৪০) উপজেলার মইজদীপুর গ্রামের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের রশিদ হাওলদার বাড়ির মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বিগত ১৩ বছর আগে তাদের বিয়ে হলেও তাদের সংসারে কোন সন্তান হয়নি। সাহাব উদ্দিন পেশায় একজন চা পাতা বিক্রেতা। মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) রাতের খবার খেয়ে স্বামী- স্ত্রী ঘুমিয় পড়ে। রাত সাড়ে ১২ টার দিকে স্বামী সাহাব উদ্দিন চিৎকার দিয়ে জানায় তার স্ত্রী হার্ট অ্যাটাক করেছে। এরপর বাড়ির লোকজন রাতেই একজন পল্লী চিকিৎসক নিয়ে এলে তিনি তাকে মৃত ঘোষণা করে। তারপর নিহতের মা বিষয়টি সেনবাগ থানা পুলিশকে অবহিত করে। পুলিশ বুধবার সকালে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। একই সাথে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য স্বামী সাহাব উদ্দিনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

সেনবাগ থানার অফিসার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল বাতেন মৃধা বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, নিহতের স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় এনে রাখা হয়েছে। মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

Previous articleলোকসংগীত সাধক রায়পুরের হায়দার আলী বয়াতি আর নেই
Next articleআশিকুর-মাহিরের নেতৃত্বে ইবি ক্যারিয়ার ক্লাব
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।