বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ৭জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সঙ্গে গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় নতুন করে ২২৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্ত অনুসারে শনাক্তের হার ৩১ দশমিক ৪৪ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) সন্ধ্যা ৬টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন জেলা সিভিল সার্জন ডা.ইফতেখার হোসেন ও নোয়াখালী কোভিড হাসপাতালের সমন্বয়ক ডা.নিরুপম দাশ।

তারা আরও জানায়, গতকাল বুধবার সকাল আটটা থেকে আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত নোয়াখালী ডেডিকেডেট কোভিড হাসপাতাল ৫জন ও হাতিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একজন ও মাইজদী শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ১জন করোনায় মারা গেছেন।

কোভিড হাসপাতাল নিহতরা হলেন, সোনাইমুড়ীর আমিশাপাড়া গ্রামের রুহুল আমিন (৬৮), মানিক নগর গ্রামের মফিজ উল্যাহ (৭০), সেনবাগ উপজেলার শাহীন আক্তার (৫০) ও মো. ইউছুফ (৬৫) এবং কবিরহাট উপজেলার পারভীন আক্তার (৫২)। এদিকে, হাতিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মো. জাহাঙ্গীর হোসেন (৭০) গতকাল বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে মারা যায়। সে উপজেলার চরইশ্বর ইউনিয়নের বাসিন্দা। একই রাতে জেলার চাটখিখের কুলশ্রী গ্রামের বাসিন্দা ময়ফুল বেগম (৬০) নামে করোনায় আক্রান্ত এক নারী জেলা শহর মাইজদীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন।

নোয়াখালী কোভিড হাসপাতালের সমন্বয়ক নিরুপম দাশ জানান, বর্তমানে যে সব করোনা রোগী কোভিড হাসপাতালে ভর্তি আছে তাদের বেশির ভাগের অবস্থা সঙ্কটাপন্ন। করোনায় আক্রান্তরা শুরুতেই হাসপাতাল মুখী হচ্ছে হচ্ছেনা। তারা শারীরিক অবস্থা জটিল করে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে। এটি সঠিক চিকিৎসার জন্য বড় একটি প্রতিবন্ধক।

জেলা সিভিল সার্জন ডা.ইফতেখার হোসেন জানান, বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও বেসরকারি হাসপাতালে নিহতদের নাম ঠিকানা যাচাই বাচাই করা হচ্ছে। এই প্রক্রিয়া শেষে পুরোপুরি তথ্য প্রকাশ করা হবে।

Previous articleদেশে করোনায় আজও ২৩৯ জনের মৃত্যু
Next articleরংপুরে টিকা নিয়েছে উত্তরা ইপিজেড ও ফুলবাড়ী কয়লা খনিতে কর্মরত ২শ২৬ জন চীনা নাগরিক
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।