জয়নাল আবেদীন: “দশদিন চোরের একদিন গৃহস্থের” । সনাতন এই বাক্যের বাস্তব চিত্র মিলেছে রংপুরের পীরগঞ্জে । স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় আপত্তিকর অবস্থায় দেখে প্রেমিককে পিটিয়ে হত্যা করেছেন ক্ষুব্ধ স্বামী।

এ সময় স্ত্রীকেও পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়েছে। ওই ঘটনার পর থেকে গা ঢাকা দিয়েছেন বাহাদুর স্বামী। আহত পারভেজ ইসলাম রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার ভোরে মারা যান। এর আগে শনিবার রাতে পীরগঞ্জ পৌর এলাকার সোনাকান্দর এালকায় পরকীয়ার অভিযোগে লাঠিপেটা করার এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায় নিহত পারভেজ ইসলাম পীরগঞ্জ উপজেলা সদরের বালুয়াঘাট গ্রামের রেনু মিস্ত্রির ছেলে।

পীরগঞ্জ বন্দরবাজারে ইলেকট্রনিক সার্ভিসিংয়ের ব্যবসা করতেন পারভেজ। পুলিশ ও আশপাশ এলাকার মানুষ জানায়, পারভেজের সঙ্গে ওই নারীর দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়া সম্পর্ক চলছিল। ঘটনার দিন শনিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে পারভেজ ওই গৃহবধূর সঙ্গে দেখা করতে যান। এ সময় গৃহবধূর স্বামী তাদের দু‘জনকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে উত্তেজিত হয়ে উঠেন। বাগবিন্ডার একপর্যায়ে স্ত্রীসহ প্রেমিক পারভেজকে বাঁশের লাঠি দিয়ে পেটাতে থাকেন। এতে লাঠির আঘাতে পারভেজের মাথা থেঁতলে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। পরে আশপাশের লোকজন এসে আহত অবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করে পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে পারভেজকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয় । রোববার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় প্রেমিক পারভেজ মারা যান । বর্তমানে ওই নারী পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের সংসারে একটি সন্তান রয়েছে। এদিকে ওই ঘটনার পর থেকে গৃহবধূর স্বামী গা ঢাকা দিয়েছেন। অন্যদিকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখার বিষয়টি নিয়ে তাদের পরিবারের কেউ মুখ খুলছেন না।

Previous articleরংপুরে ১৮ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের সমর্থন পেতে ১৪০জন প্রার্থীর দৌঁড়ঝাপ
Next articleযারা বাইরে বেগমপাড়া করেছে, তাদের ধরেন: হাইকোর্ট
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।