মোঃ হুমায়ুন কবির: নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার বামনখালী খাল ও সুতি সাইডুলি নদীতে রোববার দিনব্যাপী এক অভিযান পরিচালনা করে প্রায় ৩ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের বিভিন্ন প্রকারের ১৫ হাজার মিটার অবৈধ জাল জব্দ করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

রোববার (৩ অক্টোবর) সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মউনউদ্দিন খন্দকারের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ অভিযানে সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সাজ্জাদ হোসেন ও কেন্দুয়া থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) রোকন উজ জামান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতকে সহযোগিতা করেন।

সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সাজ্জাদ হোসেন বলেন, গত ২৮ সেপ্টেম্বরেও ইউএনও স্যারকে নিয়ে এ এলাকায় আমরা অভিযানে বের হয়েছিলাম।

সেদিন সবাইকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছিল- যাতে তারা উন্মুক্ত জলাশয় থেকে অবৈধ জাল ও বাঁধ সরিয়ে নেন।

কিন্তু সতর্ক করার পরও অনেকেই তা করেননি। তাই আজ রোববার আবারও পুনরায় অভিযান পরিচালনা করে ম্যাজিক জাল, ভরজাল, খরাজাল,নেটজাল ও কারেন্ট জালসহ প্রায় ৩ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের বিভিন্ন প্রকারের ১৫ হাজার মিটার অবৈধ জাল জব্দ করা হয়েছে। জব্দকৃত এসব জাল রোদে শুকিয়ে প্রকাশ্যে আগুনে পুড়িয়ে দেওয়া হবে বলেও তিনি বলেন।

এ বিষয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইউএনও মো. মইনউদ্দিন খন্দকার বলেন, উপজেলার বেজগাঁও থেকে গোগবাজার পর্যন্ত উন্মুক্ত জলাশয়ে অভিযান পরিচালনা করে অবৈধ জাল জব্দসহ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে।

এছাড়াও এ বিষয়ে মাইকিং করে সবাইকে সতর্ক করে দেওয়া হবে। এরপরও যদি কেউ এসব উন্মুক্ত জলাশয়ে বাঁধ দিয়ে কিংবা জাল দিয়ে মাছ শিকার করেন তাহলে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে সরাসরি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Previous articleবেনাপোলে ট্রাক থেকে চালকের মরদেহ উদ্ধার
Next articleজামালপুরে বজ্রপাতে দাদা-নাতিসহ ৩ জনের মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।