বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নারী ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যসের ৫ বছরের সম্মানি ভাতা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে চেয়ারম্যান আবদুল হান্নান ওরফে হিরু বিরুদ্ধে। কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার উত্তর হাওলায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার বাদী হয়ে কুমিল্লা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী ইউপি সদস্য লাকী মজুমদার।

অভিযুক্ত আবদুল হান্নান ওরফে হিরু মনোহরগঞ্জ উপজেলার ৯ নং উত্তর হাওলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। ভুক্তভোগী লাকী মজুমদার ওই ইউনিয়ন পরিষদের ৩নং সংরক্ষিত (বর্তমানে ৭,৮,৯) এর মহিলা সদস্য।

মামলায় ভুক্তভোগী ইউপি সদস্য লাকী মজুমদার উল্লেখ করেন, গত ২০১৬ সালের ১ জুন থেকে চলতি বছর অক্টেবর পর্যন্ত মাসিক ৪ হাজার ৪০০ টাকা করে মোট ২ লাখ ৮৬ হাজার টাকা পাবেন। তবে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সম্মানি ভাতা তাকে দেয়া হয়নি। বিভিন্ন সময় এ বিষয়ে চেয়ারম্যান আবদুল হান্নান ওরফে হিরুকে জানালে তিনি নানা রকম ভয়ভীতি দেখাতেন। বাধ্য হয়ে গতকাল মঙ্গলবার কুমিল্লা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত ৬ এর বিচারক মিথিলা জাহান নীপার আদালতে একটি মামলা দায়ের করি।

বিচারক মামলাটি তদন্ত করে আগামী ২ নভেম্বর তদন্ত রিপোর্ট জমা দিতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।

আজ বুধবার জেলা গোয়েন্দা বিভাগের ওসি সত্যজিত বড়ুয়া জানান, এখনো মামলার কাগজপত্র তার কাছে আসেনি। মামলার কাগজ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ইউপি সদস্যের টাকা আত্মসাতের অভিযোগের বিষয়ে চেয়ারম্যান আবদুল হান্নান হিরু বলেন, ওই নারী সদস্য অফিসে আসে না। যে কারণে তার সম্মানি ভাতা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না।

Previous articleএসএসসির সিলেবাস আর সংক্ষিপ্ত করা হবে না: শিক্ষামন্ত্রী
Next articleরাজধানীর পল্লবী থেকে নিখোঁজ ৩ কিশোরীকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।