কায়সার হামিদ মানিক: কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী ১৮ নম্বর ক্যাম্পের একটি মাদ্রাসায় দুর্বৃত্তদের হাতে ৬ জন খুনের মামলায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন আরাফাত উল্লাহ (২২) নামে এক রোহিঙ্গা যুবক।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ১৪ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক মো. নাইমুল হক।

তিনি জানান, বুধবার কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জেরিন সোলতানার আদালতে ১৬৪ ধারায় সন্দেহভাজন হিসেবে গ্রেপ্তার এ আসামির জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।

আরাফাত উল্লাহ মধুরছড়া ৪ নম্বর ক্যাম্পের জি/২ ব্লকের মৃত আব্দুর রহিমের ছেলে।

এসপি নাইমুল আরও জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার ভোরে তাকে মধুরছড়া ৪ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জি/২ ব্লক থেকে ৬ রোহিঙ্গা হত্যা মামলার আসামি সন্দেহে গ্রেপ্তার করা হয়।

পরে পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন এবং বুধবার বিকেলে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

উল্লেখ্য, ২২ অক্টোবর ভোরে উখিয়ার ১৮ নম্বর ক্যাম্পের দারুল উলুম নাদওয়াতুল ওলামা আল-ইসলামীয়া মাদরাসায় গুলিবর্ষণ এবং ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় একটি সশস্ত্র গ্রুপ। এতে ঘটনাস্থলে তিনজন ও পরে হাসপাতালে আরও তিনজনের মৃত্যু হয়। মূলত প্রত্যাবাসন বিরোধীরা মাদরাসার নিয়ন্ত্রণ নিতে না পেরে এ হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে বলে ধারণা পুলিশের।

পরে ২৪ অক্টোবর ৬ খুনের ঘটনায় ২৫ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ২৫০ জনের নাম উল্লেখ না করে মামলা হয়। এ মামলায় এজাহারনামীয় ৫ জনসহ এ পর্যন্ত ১৫ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সদস্যরা।

Previous articleছোটদের খেলাকে কেন্দ্র করে পাঁচবিবিতে শিশুকে কুপিয়ে জখম
Next article১২ কেজি এলপি গ্যাসের দাম এখন ১৩১৩ টাকা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।