প্রদীপ অধিকারী: জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে ছোটদের খেলাকে কেন্দ্র করে মঈন আহম্মেদ (১০) নামের এক শিশুকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিবেশী শিশুর এক অভিভাবক। শিশুটি রক্তাক্ত জখম হওয়ায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এতে মঈনের বাবা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। গত মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার ধরঞ্জী ইউনিয়নের ধরঞ্জী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মঈন ঐ গ্রামের মতিয়ার রহমানের ছেলে। প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যার আগে গ্রামের বেশ কিছু ছোট বাচ্চারা গ্রামের মধ্যে খেলাধুলা করছিল। এক পর্যায়ে মতিয়ার রহমানের ছেলে মঈন ও প্রতিবেশী আশাদুল ইসলামের মেয়ে আশরাফিয়ার মধ্যে খেলা নিয়ে হাতাহাতি হয়। এতে আশরাফিয়া কান্নাকাটি করে বাড়ীতে গিয়ে তার মা বাবাকে বললে, তার বাবা বাড়ী থেকে এসে মঈনকে বাঁশের কাঁচা কঞ্চি দিয়ে পিটাতে থাকে এবং হাতে থাকা হাসুয়া দিয়ে মঈনের বাম ঘাড়ে কোপ দিলে কেটে রক্ত বের হতে থাকে। এসময় পাশের বাড়ীর লোকজনেরা তাকে উদ্ধার করে দ্রুত স্থানীয় ডাক্তারের নিকট নিয়ে যায়। কিন্তু সেখানে না হওয়ায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করান। অভিযুক্ত আশাদুল ইসলামের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, কঞ্চি দিয়ে মারের বিষয় স্বীকার করলেরও হাসুয়া দিয়ে কোপ দেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন। স্থানীয় ইউপি সদস্য মমতাজ উদ্দিন বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। তবে কোন পক্ষ আমার নিকট আসেনি। পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ পলাশ চন্দ্র দেব বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Previous articleসোনারগাঁওয়ের ইউপি নির্বাচনের যাচাই বাছাই সম্পন্ন
Next articleরোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৬ খুনের ঘটনায় আরাফাতের দায় স্বীকার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।