মোস্তাক আহম্মদ: ডিজেল ও কেরোসিনের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে দেশব্যাপী পরিবহন ধর্মঘটের অংশ হিসেবে দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে পরিবহন ধর্মঘটে ধর্মঘট ধর্মঘট চলছে।

গত শুক্রবার (৫ নভেম্বর) সকাল ৬ থেকে ফুলবাড়ী-দিনাজপুর, ঢাকা, রংপুর, বগুড়া, রাজশাহী, পাবনা, সিলেট, চট্টগ্রামসহ দেশের সব রুটের বাস, ট্রাক, ট্যাঙ্কলড়ি, কাভার্ডভ্যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে যাত্রীরা পড়েছেন চরম ভোগান্তিতে।

গতকাল শনিবার সকালে সরেজমিনে ফুলবাড়ী উপজেলার কোনো রুটে বাস, ট্রাক, ট্যাঙ্কলড়ি, কাভার্ডভ্যান চলাচল করতে দেখা যায়নি। ফুলবাড়ী বাসষ্ট্যান্ড থেকে কোনো বাস ও ট্রাক ছাড়েনি। সড়কগুলো ফঁাকা রয়েছে। শুধু অটোরিকশা, রিকশা ভ্যান, নছিমন-করিমন, টেম্পো চলাচল করছে।

সকালে ফুলবাড়ী বাসষ্ট্যান্ডে আসা পার্বতীপুরের আমবাড়ী এলাকার আব্দুল মতিন জানান, জরুরি কাজে পাবনার নগরবাড়ী যেতে তিনি বাসষ্ট্যান্ডে এসেছেন। কিন্তু এসে দেখেন বাস বন্ধ। ফলে তিনি দুর্ভোগে পড়েছেন। তবে অটোরিকশা কিংবা টেম্পো দিয়ে হলেও তাকে নগরবাড়ী যেতেই হবে।

নবাবগঞ্জ উপজেলার ভালকা জয়পুর গ্রামের মোজাফ্ফর রহমান বলেন, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার আত্মীয় চিকিৎসাধিন রয়েছেন। তাকে দেখতে পরিবারসহ বাড়ী থেকে বের হয়েছেন। বাস বন্ধ থাকায় টেম্পো নিয়েই যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যদিও এতে অধিক অর্থ ব্যয় হবে।

স্থানীয় মোটর পরিবহন শ্রমিক আব্দুল খালেক ও মেরাজ উদ্দিন বলেন, গাড়ীঘোড়া বন্ধ থাকায় আমরাও বেকার হয়ে পড়েছি। এতে আয় রোজগার বন্ধ হয়ে গেছে। কিন্তু বাড়ী থেকে কি করবো তাই ষ্ট্যান্ডে এসে অন্যে শ্রমিক ভাইদের সাথে আড্ডা দিচ্ছি।

দিনাজপুর মোটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মহসিন আলী সরকার বলেন, জ্বালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন ফেডারেশন দেশব্যাপী এই ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। তারই অংশ হিসেবে উপজেলায় পরিবহন ধর্মঘট চলছে। ফুলবাড়ী উপজেলা থেকে সব পরিবহন চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। এটা অনির্দিষ্ট কালের জন্য ডাকা হয়েছে বলে তিনি জানান।

Previous articleনোয়াখালীতে ছাত্রলীগ কর্মী গুলিবিদ্ধ
Next articleচান্দিনায় হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠনের ২ দিন পরেই একজনকে অব্যাহতি!
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।