বাংলাদেশ প্রতিবেদক: কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে চুরির অপবাদ সইতে না পেরে সুবর্না আক্তার (১৬) নামের এক স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

তিনি উপজেলার দক্ষিণ সাহেদল গ্রামের হাজী আকবর হোসেনের মেয়ে এবং গলাচিপা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী। সুবর্না আত্মহত্যার আগে তার স্কুলের খাতায় একটি চিরকুটে অপমানের বিবরণ লিখে চুরির অপরাধ অস্বীকার করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার বিকেলে এ মর্মান্তিক ঘটনার সৃষ্টি হলে পুলিশ আত্মহত্যার প্ররোচনার আলামত হিসেবে ৮ পৃষ্টা লেখা খাতা ও মোবাইল ফোনে রেকর্ড করা ভিডিও জব্দ করেন।

নিহতের মা হালিমা খাতুন জানান, তাদের বাড়ির পাশের খসরু মিয়ার ছেলের নাতির স্বর্ণের চেইন ছিনতাই হয় গত ৫ অক্টোবর। সে দিন ওই মেয়ে তার মেয়ে সুবর্না আক্তারকে সন্দেহ করে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক নুরুন্নাহারকে নিয়ে তাদের বাড়িতে আসেন। এরই ধারাবাহিকতায় সুবর্নার বাবা হাজী আকবর হোসেন স্থানীয় আশুতিয়া বাজারে গেলে সেখানে খসরু, লোকমান ও আব্দুল হামিদ নামের কয়েকজন তাকে মারধর করে এবং রাতে দলবল নিয়ে তাদের বাড়িতে হামলা চালায়। এসব ঘটনায় স্কুলছাত্রী সুবর্না অপমান সইতে না পেরে অবশেষে লোক-লজ্জায় আত্মহত্যার করেন।

এ ব্যাপারে হোসেনপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ মর্গে পাঠানো হয়েছে। লাশ দাফন-কাফন শেষে মামলা দায়ের করার পর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন তিনি।

Previous articleফতুল্লায় গার্মেন্টস শ্রমিককে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ১
Next articleরংপুরে পরীক্ষা শুরুর আগে ৬ তলা থেকে লাফ দিয়ে পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।