অভিযুক্ত স্বামী মোর্শেদ আলীকে পুলিশ আটক করে নিয়ে যাচ্ছে।

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ঢাকার আশুলিয়ায় স্ত্রী লাইলী বেগমকে সিজার দিয়ে গলায় আঘাত করে হত্যাচেষ্টার পর নিজের শরীরে গরম পানি ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন স্বামী মোর্শেদ আলী। পরে স্থানীয়রা রক্তাক্ত অবস্থায় স্ত্রীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন এবং স্বামীকে আটকে রেখে পুলিশে হস্তান্তর করেছেন।

অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করে তাকেও হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সকালে আশুলিয়ার শিমুলিয়া ইউপির কোনাপাড়া কলেজপাড় এলাকার সৌদি প্রবাসী আজিম উদ্দিনের ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি। তবে স্বামী-স্ত্রী দু’জনেই পোশাক কারখানার শ্রমিক বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে আরো জানা গেছে, লাইলি বেগম ও তার স্বামী মোর্শেদ আলী ওই এলাকায়ে ভাড়া বাসায় থেকে স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় চাকুরি করেন। সকালে দাম্পত্য কলহের জের ধরে ঘরে থাকা ধারালো কেচি দিয়ে স্ত্রীর গলায় আঘাত করে তাকে হত্যার চেষ্টা করেন মোর্শেদ। পরে নিজের শরীরে গরম পানি ঢেলে নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এ সময় আশপাশের লোকজন এসে লাইলিকে উদ্ধার করে চক্রবর্তীস্থ শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মোমোরিয়াল কেপিজে বিশেষায়িত হাসপাতালে ভর্তি করেন। একইসাথে অভিযুক্ত মোর্শেদকে আটকে রেখে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে পুলিশে খবর দেন তারা।

খবর পেয়ে আশুলিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে অভিযুক্ত মোর্শেদকে উদ্ধার করে গণস্বাস্থ্য সমাজ ভিত্তিক হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়।

আশুলিয়া থানার এসআই আউয়াল হোসেন বলেন, আহত স্ত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এছাড়া স্থানীয়রা অভিযুক্তকে আটক করে রেখেছিলো, তাকে উদ্ধার করে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী স্ত্রীর পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

Previous articleইউএনও অফিসে দেখা হতেই ২ চেয়ারম্যানের মারামারি
Next articleদেশে করোনা শনাক্তের হার ১.৩, মৃত্যু ২
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।