মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০২৪
Homeসারাবাংলাতথ্য অধিকার আইন জনগণের ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করেছে

তথ্য অধিকার আইন জনগণের ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করেছে

ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ জনগণের ক্ষমতায়নে একটি মাইলফলক। আইনটির অনন্য বৈশিষ্ট্য হল, দেশের প্রচলিত অন্য সব আইনে কর্তৃপক্ষ জনগণের ওপর ক্ষমতা প্রয়োগ করে থাকে কিন্তু এ আইনে জনগণ কর্তৃপক্ষের ওপর ক্ষমতা আরোপ করে। তথ্যই শক্তি আর তথ্যে প্রবেশাধিকার ক্ষমতায়ন, জনগণের ক্ষমতায়ন। আইনটি জনগণের ক্ষমতায়নের প্রকৃত হাতিয়ার। তথ্যের অবাধ প্রবাহ এবং জনগণের তথ্য অধিকার নিশ্চিতকরণের বিধান করার লক্ষ্যেই আইনটি প্রণীত করা হয়েছে। এই আইনের ফলে জনগণের ক্ষমতায়ন নিশ্চিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (০২ ডিসেম্বর) সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জে তথ্য অধিকার ও গুরুত্ব নিয়ে কমিউনিটি সংলাপে বক্তারা এসব কথা বলেন। সুইজারল্যান্ডের সহায়তায় ও বাংলাদেশ এনজিওস নেটওয়ার্ক ফর রেডিও এ্যান্ড কমিউনিকেশন-বিএনএনআরসি’র কারিগরি সহযোগিতায় সংলাপের আয়োজন করে চাঁপাইনবাবগঞ্জের কমিউনিটি রেডিও- রেডিও মহানন্দা ৯৮.৮ এফএম। জেলা শহরের বেলেপুকুরস্থ প্রয়াস মানবিক মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির প্রধান কার্যালয়ের নকীব হোসেন মিলনায়তনে এ সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়।

কমিউনিটি সংলাপে বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের প্রধান, কর্মকর্তা, প্রতিনিধি ও জেলায় কর্মরত বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিক, সংস্কৃতিকর্মী এবং বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ অংশ নেয়। আলোচকবৃন্দ বলেন, তথ্য অধিকার আইন একটি শক্তিশালী নাগরিকবান্ধব আইন। প্রকৃতই জনগণের আইন। সর্বজনীন আইন। শ্রেণীগত ভেদাভেদ নির্বিশেষে সর্বস্তরের নাগরিককে রাষ্ট্রের তথ্য পাওয়ার অধিকার দেয়। আইনের শাসন, মানবাধিকার, ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা এবং সামাজিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক অধিকার নিশ্চিত করা সম্ভব এই আইন প্রয়োগের মাধ্যমে।

বক্তারা আরও বলেন, ক্ষমতায়নের জন্য জনগণের তথ্য অধিকার তথা তথ্যে অভিগম্যতা নিশ্চিত করা একান্ত আবশ্যক। এতে সরকারি, বেসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও সংবিধিবদ্ধ সংস্থা এবং সরকারি ও বিদেশি অর্থায়নে পরিচালিত বেসরকারি সংস্থার স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বৃদ্ধি পাবে, দুর্নীতি হ্রাস পাবে ও সুশাসন প্রতিষ্ঠিত হবে। সব উন্নয়ন কার্যক্রম, সামাজিক ও অর্থনৈতিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর তথ্য জনগণকে জানাতে হবে, জনগণের এসব অধিকারের তথ্য দেয়া বাধ্যতামূলক। তথ্য আদান-প্রদানের মাধ্যমে সমাজের অবহেলিত, পিছিয়ে পড়া, সুবিধাবঞ্চিত, ঝুঁকির্পূণ, অরক্ষিত ও প্রান্তিক জনগণের ন্যায্য অধিকার আদায় নিশ্চিত করে তাদের প্রকৃত উন্নয়ন ঘটানো সম্ভব।

বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা-প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির কর্মসূচি ব্যবস্থাপক (প্রশিক্ষণ) আব্দুস সালাম তথ্য অধিকার ও এর গুরুত্ব নিয়ে তথ্যচিত্র প্রদর্শনী উপস্থাপন করেন। এসময় তিনি বলেন, তথ্য অধিকার আইন প্রনয়নে সবচেয়ে এগিয়ে ইউরোপের দেশ সুইডেন। তারা ১৭৬৬ সালে তথ্য অধিকারকে আইন হিসেবে স্বীকৃত দেয়। দক্ষিণ আমেরিকার দেশ কম্বোডিয়ায় ১৮৮৮ সালে এটিকে আইন হিসেবে প্রনয়ণ করে। দক্ষিণ এশিয়ায় তথ্য অধিকারকে প্রতিষ্ঠায় সবচেয়ে এগিয়ে পাকিস্তান। তারা ১৯৯৩ সালে আদালতের মাধ্যমে তথ্য অধিকারকে আইন হিসেবে প্রতিষ্ঠা করে। যা ২০১৭ সালে গেজেট প্রকাশ হয়।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদশে তথ্য অধিকার আইনে তথ্য প্রদানে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, আপিল কর্মকর্তা, তথ্য কমিশন গঠন করা হয়েছে। তথ্য না দিলে সেই কর্মকর্তার শাস্তি বা জরিমানার বিধানও রাখা হয়েছে তথ্য অধিকার আইনে।

সংলাপে প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক ও রেডিও মহানন্দার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হাসিব হোসাইন বলেন, কমিউনিটি রেডিও- রেডিও মহানন্দা কাজ করছে তথ্যের অবাধ প্রবাহ নিশ্চিত করতে কাজ করছে। তথ্য অধিকার নিয়ে জনগণের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জের মানুষের মাঝে কাজ করছে রেডিও মহানন্দা। এছাড়াও সারাদেশে ১৮টি কমিউনিটি রেডিও একইভাবে জনসাধারণের তথ্য অধিকার নিশ্চিত করতে নিরলসভাবে চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। সংলাপ, গান, নাটিকা, গম্ভীরাসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান সম্প্রচারের মাধ্যমে তথ্য অধিকার নিয়ে কাজ করছে তারা।

জেলা তথ্য কর্মকর্তা মো. ওয়াহিজ্জামান বলেন, মানুষের দোরগোড়ায় তথ্য অধিকার সম্পর্কে তথ্য জানাতে জেলা তথ্য অফিস কাজ করছে। দুঃখজনক হলেও স্যতি যে, এখন পর্যন্ত আমার অফিসে কেউ কোন তথ্য জানতে আসেনি। সাধারণ মানুষ তথ্য অধিকার নিয়ে এখনও বেশি কিছু জানেনা। তাদের প্রাপ্যতা নিয়েও সচেতন নয়। আরও সময় লাগবে, জনগনকে এটি বুঝতে।

জেলা পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ডা. আব্দুস সালাম বলেন, ইন্টারনেটের কারনে তথ্যের অবাধ প্রবাহ নিশ্চিত হয়েছে। প্রত্যেকটি সরকারি দপ্তরের ওয়েবসাইট আছে। সেখানে তথ্য পেতে সহায়তা করছে। আইন তৈরির উদ্দেশ্যে হলো স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা। কারন এতে অনিয়ম দুর্নীতি রোধ করা সম্ভব হয়। দেশ উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। আগে যে পরিমাণ দুর্নীতি হয়েছে, তথ্য অধিকারের কারনে এখন তা কমে আসছে।

সংলাপে আরও উপস্থিত ছিলেন, সমাজসবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক উম্মে কুলসুম, রেডিও মহানন্দার স্টেশন ম্যানেজার আলেয়া ফেরদৌস, সাংবাদিক এমরান ফারুক মাসুম, মাহবুবুল আলম, দৈনিক গৌড় বাংলা’র ব্যবস্থাপনা সম্পাদক আজিজুর রহমান শিশিরসহ অন্যান্যরা।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments