বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার জামালপুর বাজার রেলগেটে ট্রেনে কাটা পড়ে বাবা নিহত হয়েছেন। তবে বাবার সহযোগিতার কারণে বেঁচে গেছেন ছেলে। শনিবার সকাল ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম ছিরু মোল্লা (৫০)। তিনি উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের ছাববী পাড়া গ্রামের সামাদ মোল্লার ছেলে। এ ঘটনায় ছিরু মোল্লার ছেলে সোবহান মোল্লা (২৫) আহত হলেও প্রাণে বেঁচে গেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, শনিবার সকাল ৯টার দিকে গোপালগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীগামী ট্রেন বালিয়াকান্দি উপজেলার জামালপুর বাজার রেলগেট পৌঁছালে সেখানে কোনো গেটম্যান না থাকায় কিছু না বুঝেই ট্রাক্টর নিয়ে যাচ্ছিলেন বাবা ও ছেলে।

ছেলে সোবাহান ড্রাইভ করছিল ট্রাক্টরটি, বিপদ বুঝেই পাশে থাকা বাবা ছিরু মোল্লা দ্রুত ছেলেকে সরিয়ে দিয়ে নিজে ড্রাইভ করেন। এ সময় দ্রুতগতির ট্রেনটি তাকে সজোরে ধাক্কা দিয়ে চলে যায়। এ সময় ছেলে সোবহান মোল্লা সটকে পড়ে সামান্য আহত হলেও বাবা ছিরু মোল্লা ঘটনাস্থলেই মারা যান। ট্রেনের ধাক্কায় ট্রাক্টরটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, গোপালগঞ্জ-রাজশাহী রুটের এ অঞ্চলে কোনো গেট গেটম্যান না থাকায় প্রতিনিয়তই ঘটছে এমন দুর্ঘটনা। দ্রুত গেটম্যান নিয়োগের দাবি জানান তারা।

রাজবাড়ী রেলওয়ে থানার ওসি মাসুদ আলম বলেন, ‘আমরা এ দুর্ঘটনার বিষয়টি জানতে পেরেছি।’

Previous articleলঞ্চে অগ্নিকাণ্ড: গণকবরে ২৭ লাশ দাফন
Next articleসীতাকুণ্ডে শিপ ইয়ার্ডে বিস্ফোরণ, ৪ শ্রমিক দগ্ধ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।