তাবারক হোসেন আজাদ: চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে লক্ষ্মীপুরের ১৫টি ইউপিতে শান্তিপুর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। তবে, পুরুষের চেয়ে নারী ভোটারের উপস্থিতি বেশি লক্ষ করা গেছে।

রোববার (২৬ ডিসেম্বর) সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়; একটানা চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। ইউনিয়ন পরিষদগুলোতে কাগজের ব্যালটে ভোট নেওয়া হচ্ছে।

এদিকে নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় এ ধাপের জেলার ১৫টি ইউপিতে পুলিশ, র্যাব, বিজিবি ও কোস্টগার্ডের সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

সহিংসতার শঙ্কায় স্থানীয় প্রশাসনের চাহিদা অনুযায়ী অন্তত জেলার সদর উপজেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বাড়তি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এত বিপুলসংখ্যক সদস্য মোতায়েনের পরও সদর উপজেলায় নির্বাচনে সন্ধা পর্যন্ত সহিংসতার আশঙ্কা করছেন স্থানীয় ভোটাররা। আবার কোথাও কোথাও নির্বাচন উৎসবে পরিণত হয়েছে।

তবে জেলা ও সদর উপজেলা নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, ভোটকেন্দ্রের ১৫টি ইউনিয়নে মোট ৭৯ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী। সব কয়টি ইউনিয়নে একাধিক বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছেন। এরই মধ্যে ১৯ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীকে দল থেকে বহিস্কার করেছে জেলা আওয়ামী লীগ। এ নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় প্রতিটি ইউনিয়নে পুলিশের একটি মোবাইল ফোর্স ও প্রতি তিন ইউনিয়নে একটি করে স্ট্রাইকিং ফোর্স মাঠে রয়েছে।

প্রতি উপজেলায় র্যাবের দুটি মোবাইল ও একটি স্ট্রাইকিং টিম রয়েছে। পাঁচ প্লাটুন বিজিবি সদস্য মোবাইল ও তিন প্লাটুন স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসাবে রয়েছে। যে কোনো ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এসব সদস্য একযোগে কাজ করছেন। এ ছাড়া জুডিশিয়াল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটও রয়েছেন।

Previous articleরামু ও চট্টগ্রামে অসহায় ও দুঃস্থ জনগণের মাঝে সেনাপ্রধানের কম্বল বিতরণ
Next articleআ’লীগ নেতা জহিরুল হত্যা: ১৩ জনের ফাঁসি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।