বিমল কুন্ডু: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপন করেছে। এ উপলক্ষে আজ ১০ জানুয়ারি সোমবার রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী একাডেমিক ভবন চত্বরে নানা কর্মসূচি পালন করা হয়।

কর্মসূচির মধ্যে ছিলো জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও আলোচনা সভা। এদিন সকালে একাডেমিক ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্যে দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। পরে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহ্ আজম। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মোঃ সোহরাব আলী সহ সকল বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

দুপুরে আলোচনা সভায় দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে একক বক্তব্য রাখেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ-এর উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহ্ আজম। তিনি বলেন, ১৬ই ডিসেম্বর বাংলাদেশের বিজয় সূচিত হলেও বিজয়ের সূর্য যেন রক্তিম ছিল না। কারণ, বাঙালি জাতির শৃঙ্খলমুক্তির স্বপ্নদ্রষ্টা, বাংলাদেশ নামক কাব্য যিনি রচনা করেছিলেন, পোয়েট অব পলিটিক্স খ্যাত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তখনও পাকিস্তানের একটি কারাগারে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়ে বন্দি অবস্থায় ছিলেন। উপাচার্য ড. মোঃ শাহ আজম বলেন, অনেক বুদ্ধিজীবী ও গবেষক মনে করেন, মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত বিজয় সূচিত হয়েছিল ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি। কারন এদিন তিনি পাকিস্তান কারাগার থেকে মুক্তিলাভ করে তাঁর স্বপ্নের স্বাধীন বাংলাদেশে প্রত্যাবর্তন করেন। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুকে যারা সপরিবারে হত্যা করেছে এবং ঘাতকদের যারা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সহযোগিতা করেছে তারা বাংলাদেশের নাগরিক হওয়ার যোগ্যতা রাখে না। তাদের নামের তালিকা প্রস্তুত করে রাস্তার মোড়ে টাঙিয়ে দেওয়া উচিৎ যাতে করে নতুন প্রজন্ম সেইসব বিশ্বাসঘাতককে চিনে রাখতে পারে। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী অ্যাকাডেমিক ভবনে বঙ্গবন্ধুর একটি দৃষ্টিনন্দন ম্যুরাল স্থাপনের ঘোষণা দেন এবং শিক্ষা কার্যক্রম সচল রাখতে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন।

Previous articleআমাদেরকে মানুষের ভাগ্য গড়তে হবে: প্রধানমন্ত্রী
Next articleজয়পুরহাটে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।