বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও সোনালী ব্যাংকের কর্মকর্তা পরিচয়ে বিয়ে করে অবশেষে ধরা পড়েছে এক প্রতারক।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হলে ভুক্তভোগী ছাত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নিরাপত্তা মঞ্চের কর্মীরা তাকে আটক করে।

অভিযুক্ত প্রতারকের বাড়ি চাঁদপুর জেলার সদর উপজেলার মালিয়াগ্রামে। তিনি পেশায় একজন কফি ব্যবসায়ী।

ভুক্তভোগী ছাত্রীর দাবি, ‘প্রতারক আমাকে বলেছিলো, সে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র এবং সূর্যসেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ছিলো। এখন সে সোনালী ব্যাংকের সিনিয়র কর্মকর্তা। এসব বলে আমাকে মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে বিয়ে করে। কিন্তু বিয়ের পর আমি বুঝতে পারি সে আমার সাথে প্রতারণা করেছে। সে আমাকে নির্যাতনও করতো।’

অভিযুক্তের সাথে কথা বললে সে বলে, ‘আমি বুঝতে পারি নাই। না বুঝে আমি এটা করেছি। আমার সংসার করার ইচ্ছে ছিলো।’

নিরাপত্তা মঞ্চের প্রতিষ্ঠাতা ও সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জুলিয়াস সিজার তালুকদার বলেন, ‘আমাদের কাছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভুক্তভোগী ছাত্রী তার সমস্যার কথা বললে আমরা তাকে বলি যেন কৌশলে তাকে ঢাবি ক্যাম্পাসে নিয়ে আসে। এখানে নিয়ে আসার পর আমরা তাকে ধরে ফেলি। জিজ্ঞাসাবাদে সে সবকিছু স্বীকার করে। আমরা এখন তাকে প্রক্টরিয়াল টিমের মাধ্যমে পুলিশের হাতে তুলে দেবো।’

Previous articleমুলাদীতে পুলিশের বিরুদ্ধে সাবেক নারী ইউপি সদস্যের শ্লীলতাহানির অভিযোগ
Next articleলেজার লাইটের উৎপাতে শাহজালালে বিমান অবতরণে ঝুঁকি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।