বাংলাদেশ প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার কামালপুরে প্রবাসীর স্ত্রী আত্মহত্যা করেছেন। এক স্কুলশিক্ষক উত্যক্ত করায় অপমাণ সইতে না পেরে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনার পর অভিযুক্ত ওই শিক্ষক শাকিল হোসেন (৪৫) সহ চারজনের নাম উল্লেখ করে আলমডাঙ্গা থানায় আত্মহত্যায় প্ররোচণার একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আত্মাহত্যা করা গৃহবধূ সোনিয়া খাতুনের (২৫) বাবা সকির উদ্দীন মামলাটি করেন।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত শাকিল হোসেন একই উপজেলার কামালপুর গ্রামের মঙ্গল আলীর ছেলে ও একই উপজেলার আঠারোখাদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। সোনিয়া খাতুন শুক্রবার ভোরে আত্মহত্যার করলে ওইদিনই থানায় মামলা করে তার বাবা।

স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা যায়, উপজেলার কামালপুর গ্রামের নাজমুল ইসলাম প্রায় পাঁচ মাস আগে সৌদি আরব গেছেন। পাঁচ বছরের শিশুকন্যাকে নিয়ে স্বামীর বাড়িতে থাকেন সোনিয়া খাতুন। আগে থেকেই সোনিয়া খাতুনকে বিরক্ত করতেন ওই স্কুলশিক্ষক। পরে তার স্বামী বিদেশ চলে যাওয়ার পর থেকেই শাকিল হোসেন তাকে অতিমাত্রায় উত্যক্ত করে আসছিলেন। এক সময় আরো বেশি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন স্কুলশিক্ষক শাকিল। তার সাথে সোনিয়ার পরকীয়ার সম্পর্ক আছে বলে গ্রামে প্রচার শুরু করে সে। এরই এক পর্যায়ে শাকিলের ইন্ধনে একই গ্রামের মৃত খবিরের ছেলে বয়স্ক কলিম উদ্দীন, ফনির ছেলে দোকানি রনি, আবুল কাশেমের ছেলে উজ্জ্বলও সোনিয়া খাতুনকে উত্যক্ত করা শুরু করলে এসব কথা সোনিয়া তার শ্বশুর বাড়ির লোকজনকে জানায়। এরই একপর্যায়ে শুক্রবার ভোরে ঘরের আড়াই গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন সোনিয়া খাতুন। এ আত্মহত্যার পর অভিযুক্ত চার ব্যক্তি পলাতক রয়েছেন।

এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শাকিল হোসেন বিবাহিত এবং দুই সন্তানের জনক। ৭-৮ বছর পূর্বেও এক প্রবাসীর স্ত্রীকে ভাগিয়ে নিয়ে বিয়ে করেন তিনি।

এদিকে, আত্মহত্যার ঘটনায় সোনিয়া খাতুনের বাবা সকির উদ্দীন শিক্ষক শাকিল হোসেনসহ চারজনের নাম উল্লেখ করে আলমডাঙ্গা থানায় একটি আত্মহত্যায় প্ররোচণার মামলা দায়ের করেছেন।

এ বিষয়ে আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম দাবি করেন, স্বামী বিদেশে থাকার কারণে একই গ্রামের শাকিলের সাথে সোনিয়ার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। যেটা তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন ভালো চোখে দেখেনি। তারা রাতদিন তাকে ভৎসনা করত। অন্যদিকে, তার স্বামীও তাকে নানাভাবে দোষারোপ করতো। শাকিলও বিবাহিত। নানা কারণে কোনো উপায়ান্তর না দেখে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে বলে মনে হয়েছে। আমরা তদন্ত করে প্রকৃত ঘটনা উদ্ঘাটন করবো।

Previous articleনোয়াখালীতে গণটিকা কেন্দ্রে উপচে পড়া ভিড়
Next articleদেশ বাঁচাতে ইউক্রেনে‌র সেনা ক্যাম্পে ‌হাজির ৮০ বছরের বৃদ্ধ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।