এস কে রঞ্জন: পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার কুয়াকাটায় আদিবাসী রাখাইন মং সুইচিং হত্যা মামলা প্রত্যাহারে কুয়াকাটা পৌরসভার মেয়র মো: আনোয়ার হোসেন হাওলাদার কর্তৃক বাদীকে হুমকী প্রদানের অভিযোগ সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বিজ্ঞ কলাপাড়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট শোভন শাহরিয়ার’র আদালত বৃহস্পতিবার ৩ মার্চ ২০২২ বাদী চুচিং মং রাখাইন’র নালিশী মামলা আমলে নিয়ে এ আদেশ প্রদান করেন। এর আগে বাদী চুচিং মং গত ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২ বিজ্ঞ আদালতে রাখাইন মং সুইচিং (৬৫) হত্যার ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করেন। যা বিজ্ঞ আদালত ময়না তদন্ত ও সুরতহাল রিপোর্ট সংগ্রহে সাপেক্ষে আদেশের জন্য রেখে ২৭ ফেব্রুয়ারী জেলা প্রধান সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ প্রদান করেন। এর পর কুয়াকাটা পৌরসভার মেয়র আনোয়ার সহ অজ্ঞাত ৫ জন ১ মার্চ ২০২২ তদন্তাধীন উক্ত হত্যা মামলা প্রত্যাহারে মামলার বাদী ও স্বাক্ষীদের হুমকী প্রদান করেন বলে মামলার অভিযোগে বলা হয়। এমনকি পোষ্ট মর্টেম রিপোর্ট বের হওয়ার আগেই ভিকটিম পরিবারকে মৃত্যুর কারন আত্মহত্যা বলে মৃত্যু সনদ সরবরাহ করেন মেয়র।

এ বিষয়ে কুয়াকাটা পৌরসভার মেয়র মো: আনোয়ার হোসেন হাওলাদার বলেন,তিনি হত্যা মামলার বাদি কিনা সেটাই আমি যানিনা। আর তাকে কেন হুমকী দেবো। এদিকে গত ১৯ নভেম্বর ২০২১ আদিবাসী রাখাইন মং সুইচিং এর লাশ কুয়াকাটা সৈকত থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। ভিকটিম পরিবার থেকে এটিকে বারবার হত্যা কান্ড বলে অভিযোগ করা হলেও একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করে মহিপুর থানা পুলিশ।এরপর দীর্ঘদিন মহিপুর থানায় গিয়েও ভিকটিম’র ময়না তদন্ত ও সুরতহাল রিপোর্ট সংগ্রহে ব্যর্থ হয়ে আদালতে মামলা করে ভিকটিম’র ভাই চুচিং মং রাখাইন।

Previous articleস্বর্ণের দাম ভরিতে ৩২৬৫ টাকা পর্যন্ত বাড়ল
Next articleরোহিঙ্গাদের অবস্থান পর্যবেক্ষণে ভাসানচরে ১০ দেশের রাষ্ট্রদূত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।