এস কে রঞ্জন: পর্যটন কেন্দ্র সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটায় আবারও ভেসে এসেছে মৃত একটি কচ্ছপ। শুক্রবার রাতে ঝাউবন পয়েন্ট এলাকায় এটিকে স্থানীয়রা দেখতে পায়। প্রায় ৩০ কেজি ওজনের কচ্ছপটির মুখ এবং পা অর্ধগলিত ছিল। ডলফিন রক্ষা কমিটির সদস্যরা খবর পেয়ে এটিকে উদ্ধার করে ওই রাতেই মাটি চাপা দেয়া হয়েছে। তবে এভাবে একের পর এক মৃত কচ্ছপ তীরে ভেসে আসায় উদ্বিগ্ন গবেষকরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জোয়ারের সময় এ কচ্ছপটি সৈকতে এসে আটকা পরে। তাদের ধারনা জেলেদের জালের আঘাত কিংবা কোন ফিসিং বোটের সাথে ধাক্কা খেয়ে এটি মারা যেতে পারে। এর পর সাগরের ঢেউয়ের তোরে মৃত কচ্ছপটি তীরে আসে। ডলফিন রক্ষা কমিটির সদস্য কে এম বাচ্চু জানান, এটি জোয়ারে ভাসে সৈকতে আসে। দেখে মনে হয়েছে এটি মা কচ্ছপ। এটির সামনের কিছু অংশ অর্ধগলিত ছিলো।

ইউএস এইড ইকোফিস-২ ওয়ার্ডফিস’র সহযোগী গবেষক সাগরিকা স্মৃতি বলেন, এটি মূলত জলপাই রাঙা সামুদ্রিক কাছিম। এর বৈজ্ঞানিক নাম হচ্ছে লিপিডোসিলাস ওলিভেসা। এসব কচ্ছপ মূলত গভীর সমুদ্রে বিচরণ করে। কচ্ছপের মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনের জন্য গবেষণা যেমন প্রয়োজন। এবছর কুয়াকাটা সৈকতে এটি নিয়ে মোট ৭ টি মৃত কচ্ছপ ভেসে এসেছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

পটুয়াখালী জেলা বন বিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) তারিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, কচ্ছপের মৃত্যুর রহস্য উন্মোচনে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে চিঠির মাধ্যমে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

Previous articleটাঙ্গাইলে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩
Next articleরংপুরে মুজিবনগর দিবস পালিত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।