শফিকুল ইসলাম: আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপনসহ জেলা আওয়ামীলীগের বিভিন্ন নেতাদের নামে ফেসবুকে আপত্তিকর পোষ্ট করায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলায় জয়পুরহাট জেলা ছাত্র লীগের সাবেক উপ সমাজসেবক বিষয়ক সম্পাদক খাজা আল আমিন সোহাগকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাতে শহরের পূর্ব বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আলমগীর জাহান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেপ্তারকৃত খাজা আল আমীন সোহাগ (৪২) জয়পুরহাট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক উপ-সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক এবং জয়পুরহাট জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য খাজা সামছুল আলমের ছেলে।
মামলার আরজি সুত্রে জানা যায়, খাজা আল-আমীন সোহাগ (৪২) তার নিজ ফেসবুক আইডি থেকে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্রশাসক আরিফুর রহমান রকেট, জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ স্থানীয় নেতা জিপি, পিপিসহ বিভিন্ন ব্যক্তিদের মান-সম্মান, চরিত্র হনন এবং কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য, বিভ্রান্তমূলক, বানোয়াট ও মিথ্যা কলঙ্ক কাহিনী তৈরী করে পোষ্ট করে আসছেন। এতে আওয়ামীলীগের বিভিন্ন নেতার মান ক্ষুন্ন হয়। এসব কারনে তার বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার বিকালে প্যানেল মেয়র দেওয়ান ইকবাল হোসেন সাবু বাদী হয়ে জয়পুরহাট অতিরিক্ত চিফ
জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটির আবেদন আমলে নিয়ে এজাহার হিসেবে গণ্য করে তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে
নির্দেশ দেন।

জয়পুরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম আলমগীর জাহান বলেন, শুক্রবার দুপুরে আদালত থেকে নথিপত্র পাওয়ার পর তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। রাতে অভিযান চালিয়ে শহরের পুরাতন বাজার এলাকা থেকে জেলা ছাত্র লীগের সাবেক উপ সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক খাজা আল আমীন সোহাগকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রাতেই তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

Previous articleগোদাগাড়ীতে হেরোইনসহ মাদক কারবারি গ্রেফতার
Next articleপরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে উধাও ইতালী প্রবাসীর স্ত্রী, গ্রেপ্তার ২
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।