মিজানুর রহমান: বাংলাদেশের জলসীমানায় প্রবেশ করে অবৈধভাবে মাছ শিকারের দায়ে ভারতীয় ১৬ জেলেসহ ১টি মাছধরা ট্রলার আটক করেছে নৌ-বাহিনী।

মঙ্গলবার গভীর রাতে পায়রা বন্দরের ফেয়ার বয়া হতে ৩৫ নটিক্যাল মাইল দক্ষিন অংশের গভীর সমুদ্র থেকে তাদের আটক করা হয়। পরে বুধবার রাতে তাদের ট্রলারসহ পায়রা বন্দর নৌ-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

বৃহস্পতিবার সকালে আটককৃত জেলেদেও কলাপাড়া আদালতে প্রেরন করে। এদের প্রত্যেকের বাড়ি বাড়ি ভারতের দক্ষিন চব্বিশ পরগনা প্রদেশে। নৌ-বাহিনী জানায়, ঘটনার রাতে তাদের জাহাজ নিয়ে গভীর সমুদ্রে টহল দিচ্ছিলো। এসময় বাংলাদেশের জলসীমানায় অনুপ্রবেশ করে মাছ শিকার করছিলো ভারতীয় ৫ থেকে ৬টি ট্রলার। পরে তাদের ধাওয়া দিয়ে মা ত্রিপুরা সুন্দরী নামের একটি ট্রলারসহ ১৬ জেলেকে আটক করা হয়। আটককৃত জেলেরা হলো ভারতের দক্ষিন চব্বিশ পরগনা জেলার হরলাল দাস (৫০), ব্রিটিশ দাস (৪৮), পঙ্কোজ দাস (২৬), রাজা দাস (২২), স্বপন দাস (৪৮), জগবন্ধু দাস (৬২), আপন দাস (৬০), হৃদয় দাস (২৭), দীপক দাস (৩০), শুনিল দাস (৪৭), জয় হরিদাস (৪৫), সত্য লালদাস (২৫), রনজিত (২৪)। আর নদিয়া জেলার গোপাল পাল (৩৯), হরিদাস (৩২) ও সমির (৫০)।

মংলা জোনের বানৌজা গোমতী জাহাজের অধিনায়ক কমান্ডার আরিফ হোসেন জানান, গভীর সাগরে টহলকালে তাদের ধাওয়া দিয়ে ট্রলারসহ আটক করা হয়েছে। পরে বুধবার সন্ধ্যায় তাদের পায়রা বন্দর নৌ-পুলিশের কাছে তাদের হস্তান্তর করা হয়েছে।

পায়রা বন্দর নৌ-পুলিশের ওসি মোমেনুর রহমান জানান, নৌ-বাহিনীর সদস্যরা ইন্ডিয়ান একটি ট্রলারসহ ১৬ জেলেদের আমাদের কাছে হস্তান্তর করেছে। পওে আমরা কলাপাড়া থানা পুলিশের কাছে এসব জেলেদের সোপর্দ করি।

কলাপাড়া থানার ওসি মো. জসিম জানান, এ ঘটনায় নৌ-বাহিনী বাদী হয়ে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা দায়ের করা হয়েছে। আটককৃত জেলেদের আাদালতে প্রেরন করা হয়েছে।

 

Previous articleজমি নিয়ে বিরোধের জেরে ডিমলায় মামার হাতে প্রাণ গেল ভাগ্নের
Next articleশ্রীবরদীতে জমিসহ ঘর পেলেন ১৬ গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।