মোঃ জালাল উদ্দিন: চট্টগ্রাম, সিলেটসহ সারাদেশে মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে একযোগে চা বাগানে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি পালন করেছেন চা শ্রমিকরা।

শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ইং, সকাল থেকে দেশের ১৬৫টি চা বাগানে শ্রমিকরা একযোগে পূর্ব ঘোষিত এ কর্মবিরতি পালন করছেন বলে জানা গেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভাড়াউড়া, খাইছড়া, ফুলছড়া, কালিঘাট, খেজুরী চা বাগানসহ শ্রীমঙ্গল উপজেলার সবকটি চা বাগানের শ্রমিকরা প্রতিদিনের মতো সকাল ৯টার ভেতরে কাজের উদ্দেশে ঘর থেকে বের হয়ে কাজে যোগ না দিয়ে চা বাগানের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে দাঁড়িয়ে মিছিল সমাবেশ করে সবাই একত্রিত হয়ে পড়ে শ্রীমঙ্গল চৌমুহনা চত্বরে এ আন্দোলন শুরু করেন ।

চা বাগানের নারী শ্রমিক গৌড়ি হাজরা বলেন, আমরা ১২০ টাকা মজুরি পাই, এ দিয়ে আমাদের সংসার চলে না। আমরা অনেক কষ্ট করে জীবন পরিচালনা করছি। বাজারে সব কিছুর দাম বেশি। তাই আমাদের এ কম মজুরি দিয়ে সংসার চালানো সম্ভব হচ্ছে না।

বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের বালিশিরা ভ্যালী সভাপতি বিজয় হাজরা বলেন, আমরা গত ১৯ মাস থেকে কত আবেদন নিবেদন করেছি। কিন্তু মালিকপক্ষের তালবাহানা ও সময়ক্ষেপণের কারণে কোনো কিছুই হচ্ছে না।
তিনি আরও বলেন, মজুরি ১২০ টাকা থেকে ৩শ টাকায় বৃদ্ধি করার দাবি অনেক দিনের। মালিকপক্ষ ইতিমধ্যে ১৪ টাকা বর্ধিত করার প্রস্তাব দিয়েছে। ১৪ টাকা বৃদ্ধি হলে একজন শ্রমিকের মজুরি হবে ১৩৪ টাকা। এই ১৩৪ টাকা দিয়ে কিভাবে একজন শ্রমিকের জীবন চলবে?

এ বিষয়ে, ফিনলে টি কোম্পানির ভাড়াউড়া ডিভিশনের জেনারেল ম্যানেজার গোলাম মোস্তফা শিবলী জানান, চা বাগান মালিকপক্ষ ও চা শ্রমিক ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দে মধ্যে আলাপ আলোচনা চলমান রয়েছে। চুক্তিনুযায়ী মজুরি বৃদ্ধির সময়সীমা এখনও শেষ হয়নি। শ্রমিকদের কর্মবিরতি পালন করা বে-আইনি বলে তিনি জানান।

Previous articleচাপাইনবাবগঞ্জে সড়ে ৪ কোটি টাকার হেরোইনসহ কৃষক ছদ্মবেশী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার
Next articleমৌলভীবাজার জেলা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।