সাহারুল হক সাচ্চু: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় একটি হাফিজিয়া মাদরাসার শিক্ষাথীরা নানা উপসর্গে অসুস্থ হয়ে পড়ছে বলে জানানো হয় ৷ এমনকি অজ্ঞানের মতো অবস্থা কারো কারো হচ্ছে ৷ মাদরাসাটির শিক্ষক ( হুজুর ) ও পরিচালনার সাথে জড়িতদের কথায় শিক্ষাথীদের উপর বদ জিনের আছরে এমনটি দেখা দিচ্ছে ৷

কবিরাজ দিয়ে নানা তদবির করা হচ্ছে ৷ উল্লাপাড়া উপজেলার সদর উল্লাপাড়া ইউনিয়নের নাগরৌহা গ্রামে কবরস্থানের পাশে বিগত ২০০৫ সালে বুজরত আলী হাফিজিয়া মাদরাসা প্রতিষ্ঠা ও চালু করা হয়৷ নাগরৌহা গ্রামবাসিদের আর্থিক সাহায্য সহযোগিতায় মাদারাসাটি চলছে ৷ অন্য এলাকার দানশীল ব্যাক্তিগণ নানা সহযোগিতা করে থাকেন ৷ মাদরাসায় তিনজন শিক্ষক ও বর্তমান শিক্ষাথী সংখ্যা পঞ্চাশ জন ৷ বেশীরভাগ শিক্ষাথী উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের বলে জানা গেছে ৷ এ মাদরাসার সবাই আবাসিক শিক্ষাথী ৷

আজ বুধবার মাদরাসার প্রধান হুজুর ( শিক্ষক ) মাওঃ আঃ রাজ্জাক বলেন গত মাস দুয়েক হলো এমন সমস্যা দেখা দিয়েছে ৷ দিনে কিংবা রাতের যে কোনো সময় শিক্ষাথীদের এক দ্#ু৩৯;জনের প্রথমে মাথা ব্যাথা এরপর নানা উপসর্গে অসুস্থ হয়ে পড়ে ৷ এদেরকে বিভিন্ন ঝাড় ফুক ও পানি পড়া খাওয়ালে সুস্থ হয়ে উঠে ৷ আবার কাউকে কাউকে বাড়ী পাঠিয়ে দেওয়া হয় ৷ এমন অসুস্থ হওয়াদের ক্#৩৯;জন হলো – আতিক , হারুন , হাবিব , রেদোয়ান , কাওছার , রাকিব ৷ তিনি বলেন বদ জিনের আছরে এমনটি হচ্ছে বলে ধারণা করছেন ৷ নাগরৌহা গ্রামের আতিকের পরিবার থেকে জানানো হয় সে একাধিক বার একই ধরণের অসুস্থ হয়েছিলো ৷ এখন আতিক বাড়ীতে আছে ৷ প্রায় সতেরো বছর বয়সী মাদরাসা প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনাকারীদের একজন আঃ মালেক সরকার জানান গ্রামের পশ্চিম প্রান্তে কবরস্থানের পাশে প্রতিষ্ঠিত মাদরাসার এর আগে এমন কোনো সমস্যা হয়নি ৷ এখানে মাদরাসার সাথেই নতুন ঈদগা মাঠ করা হয়েছে ৷ এছাড়া একটি মসজিদ নির্মাণের পরিকল্পনা করা হয়েছে ৷ এমন সমস্যায় একাধিক কবিরাজ দিয়ে সমস্যার সমাধানে জোরালো চেষ্টা চলছে ৷ তারা নানা তদবির করছেন ৷ এমন অবস্থায় চারদিনের ছুটিতে শিক্ষাথীদের সবাই ও শিক্ষকদের বাড়ী পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে ৷ ঢাকা থেকে আসা কবিরাজ চান সরকার বলেন বদ জিনের আছরে দেখা দেওয়া সমস্যার সমাধানে তিনি নানা তদবিরে সব ঠিক করে দিয়েছেন ৷ তার সাথে থাকা বাখুয়া গ্রামের কবিরাজ আব্দুল আজিজ বলেন আর সমস্যা হবে না ৷ নাগরৌহা গ্রামের একাধিক জনের বক্তব্যে মাদরাসাটি যেন ভলোভাবে না চলে কিংবা একেবারে বন্ধ হোক এমন চক্রান্ত চলছে কিনা তা খতিয়ে দেখার দরকার রয়েছে ৷ তাদের কথায় গত ক্#৩৯;দিন আগে মাদরাসার মাঠে মানুষের মাথার পুরাতন খুলি পাওয়া গেছে ৷

উল্লাপাড়া সরকারী কলেজের সহকারী অধ্যাপক শামীম হাসান বলেন কোনো অবস্থাতেই জিনের আছর নয় এটি একটি মনোস্তাত্বিক সমস্যা ৷ আবাসিক শিক্ষাথীদের একজন অসুস্থ হলে দেখাদেখি আরো এক দ্#ু৩৯;জনের এমন সমস্যা দেখা দেয় ৷ মাদরাসাটির শিক্ষাথীদের মানসিক বিনোদনের অভাব , পড়ায় বেশী চাপ রয়েছে ৷ তিনি জোর দিয়ে জানান পুষ্টিকর খাবার খাওয়ানো ও মানসিক বিনোদনের ব্যবস্থা করা হলে আর কোনো সমস্যা থাকবে না ৷

Previous articleমুলাদীতে ওয়ার্কার্স পার্টির সন্ত্রাস বিরোধী দিবস পালিত
Next articleঢাকা ওয়াসার এমডি’র ১৩ বছর ধরে নেয়া বেতন-বোনাসের হিসাব চাইলেন হাইকোর্ট
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।