জয়নাল আবেদীন: রংপুর বিভাগ খাদ্যে উদ্বৃত্ত হলেও সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে নানা জটিলতার কারণে এই বিভাগে শিল্পায়ন গড়ে ওঠেনি । একমাত্র উত্তরা ইপিজেট আর রংপুরে কারুপণ্য কাজী ফার্ম, সিরামিক ইন্ডাষ্ট্রীজ ছোট ছোট জুট মিলএবং কিছু হ্যাচারির মাধ্যমে কর্মসংস্থানের সৃষ্টি করেছে ।

রংপুর বিভাগের ৮ জেলায় ৫২১টি অটো রাইস মিল এবং ৯৫৩টি ইটভাট ভাটার মাধ্যমেও কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা হয়েছে । তবে এর মধ্যে মাত্র ১৩৫টি বৈধ ইটভাটা রয়েছে বাকি ৮১৮টি ইটভাটা অবৈধ ভাবে বিভিন্নভাবে ম্যানেজ করে চালু রাখা হয়েছে । গতকাল রোববার সকালে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে শিল্প কারখানার দুষণ নিয়ন্ত্রণ,উন্নত প্রযুক্তির ইটভাটা স্থাপন এবং ইটের বিকল্প বøক ব্যবহার উদ্ধুদ্ধ করণে বিভাগীয় কর্মশালায় এসব কথা উঠে আসে ।

এই কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার মো: সাবিরুল ইসলাম । পরিবেশ অধিদপ্তর রংপুর বিভাগীয় পরিচালক সৈয়দ ফরহাদ হোসেনের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বক্তব্য প্রদান করেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার ফজলুল কবীর, রংপুর জেলার সেবক জেলা প্রশাসক মো: আসিব আহসান । কর্মশালার উদ্দেশ্যে নিয়ে পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপন করেন পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালকমো: রাইহান হোসেন । সেখানে তিনি পরিবেশ সংক্রান্ত আইন ও বিধিমালা সমুহ তুলে ধরেন । এরপর আলোচনায় অংশ নিয়ে বক্তারা বলেন আমরা অবৈধভাবে ইটভাটা চালাতে চাইনা কোন উপায়ে বৈধ করা যায় সে বিষয়ে বিভাগীয় কমিশনারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন । তারা বলেন আমরা কোটি টাকা বিনিয়োগ করে ভাটা দিয়েছি আর ১০ থেকে ১৫দিনের মধ্যে আমাদের ভাটার কাজ শুরু হবে যদি ইটভাটার অনুমতি না দেন তাহলে দ্রæত নোটিশ প্রেরণ করেন । আমরা অঅর হয়রানীর শিকার হতে চাইনা । বক্তারা আরো বলেন প্রত্যেক বৈধ ভাটার মালিককে পরিবেশ অধিদপ্তর ছাড়পত্র দেন ১বছরের জন্য আর জেলা প্রশাসক কার্যালয় অনুমতি প্রদান করেন ৩ বছরের জন্য । এই দ্বৈতনীতির কারনে অঅমরা হয়রানীর শিকার হচ্ছি । রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক তার ক্যাম্পাসের মেডিকেল বর্জ্য স্থানান্তর প্রসঙ্গে কথা বলেন এছাড়াও রংপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন মিঞা ,বেগম রোকেয়া বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষক আতিউর রহমান,ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা: রুহুল আমিন,রংপুর বিভাগীয় ইটভাটা মালিক সমিতির আহবায়ক ও পীরগাছা উপজলা চেয়ারম্যান মাহবুবার রহমান, রংপুর জেলার সাধারন সম্পাদক কলেজ শিক্ষক মো: আজিজুল ইসলাম, রংপুর গ্রæপের অতিরিক্ত পরিচালক আবু তাহের সরকার, সিনিয়র সাংবাদিক জয়নাল আবেদীন, কুড়িগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের সহ সভাপতি অলক সরকার , নীলফামারীর চেম্বার সভাপতি প্রকৌশলী এসএম শফিকুল আলম ডাবলু, নীলফামারী ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি দেওয়ান সেলিম আহমেদ, চ্যানেল আই দিনাজপুর স্টাফ রিপোর্টার শাহ আলম শাহী, গাইবান্ধা ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি আব্দুল লতিফ হক্কানি, পঞ্চগড়ের তেতুলিয়ার পরিবেশ সংগঠক মো: মাহমুদুল ইসলাম সহ পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাগন ।

বিভাগীয় কমিশনার সমাপনি বক্তব্যে সবার উদ্দেশ্যে বলেন সময় এবং যুগের চাহিদায় আইন প্রনেতাগণ আইন তৈরি করেন এবং তা মহান জাতীয় সংসদের মাধ্যমে পাশ হয়ে বাস্তবায়নের জন্য মাঠ প্রশাসনে চলে আসে । প্রশাসনের কাজ হলো সেই আইন বাস্তবায়ন করা । আপনি অবৈধভাবে কোন কাজই করতে পারবেন না । যার যার যেসব সমস্যা রয়েছে তা দ্রæত সমাধানের জন্য ৮ জেলার ডিসি পৌর কর্তৃপক্ষ সিটি কর্তৃপক্ষ সহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে তাগিদ দেন তিনি।

এছাড়াও তিনি বলেন যারা প্রকাশ্যে কোন কথা বলতে পারলেন না তারা তার মোবাইলে ম্যাসেস দিয়ে কিম্বা হোয়াটস আপে রংপুর বিভাগের যে কোন দপ্তরের কোন অভিযোগ থাকলে তা জানাতে পারেন । তিনি সেটির গোপন তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহন করবেন ।

রংপুর বিভাগীয় কমিশনার মোঃ সাবিরুল ইসলাম আরো বলেছেন,কৃষি প্রধান রংপুর অঞ্চলের কৃষি জমি রক্ষা করে উৎপাদনশীলতা বজায় রেখে কৃষি প্রক্রিয়জাতকরণ শিল্প স্থাপন করে আর্থ সামাজিক উন্নয়ন করতে হবে।এজন্য পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রেখে উন্নয়ন কাজ করতে হবে। বায়ু,দূষণ,শব্দ দূষন ও পরিবেশ দূষণ না হয় সেজন্য ইটিপি সম্বলিত প্রতিষ্ঠান গড়তে হবে। একই সাথে উন্নত প্রযুক্তির ইটভাটা ও ইটের বিকল্প ব্লক ইট ব্যবহারে জনসচেতনতা বাড়াতে হবে।চতুর্থ শিল্প বিল্পব ও টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিতে প্রকৃতি পরিবেশ সুরক্ষা এবং সব ধরনের দূষণ রোধ ও পরিবেশ আইন কঠোর ভাবে বাস্তবায়নের আহবান জানান।

Previous articleকলাপাড়ায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার দেয়া ঘর ভাংচুর, আহত ৩
Next articleরাজশাহীর পবায় এক কেজি গাঁজাসহ মাদক কারবারি কবির গ্রেফতার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।