লিটন মাহমুদ: মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার ভিটি হোগলা ব্রীজের কাছে পুলিশের পোশাক পরে হ্যান্ডকাপ পরিয়ে এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর ৫০ ভরি স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ২ লাখ টাকা, ১টি মোবাইল সেট ও মোটরসাইকেলও নিয়ে গেছে তারা।

পরে রাস্তার পাশে হ্যান্ডকাপ পরা অবস্থায় ওই ব্যবসায়ীকে পড়ে থাকতে দেখে তাকে উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায় কতিপয় অটোচালক।
জানা গেছে, মুন্সীগঞ্জের মালপাড়া এলাকার মৃত যুগেষ পালের ছেলে প্রবীর পাল (৪০) তার মালিকানাধীন চরডুমুরিয়া বাজারের তৃষা জুয়েলার্স হতে স্বর্ণালংকারসহ অন্যান্য জিনিসপত্র নিয়ে বাড়িতে ফিরছিলেন। ফেরার পথে সদর উপজেলার ভিটি হোগলা ব্রিজের কাছে পৌঁছালে আগে থেকে ওই স্থানে সিএনজি নিয়ে অপেক্ষায় থাকা ৫ পুলিশ সদস্য পরিচয়দানকারী তার পথরোধ করে হ্যান্ডকাফ পরিয়ে তার সঙ্গে থাকা ব্যাগটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এসময় ২ জন পুলিশের পোশাক পরিহিত, ১ জন ডিবির কটি পরিহিত ও ২ জন সিভিল পোশাকে ছিলেন।

ব্যবসায়ী প্রবীর পাল বলেন, ৩০ থেকে ৩৫ বছর যাবৎ স্বর্ণের ব্যবসা করি। আগে স্বর্ণের ব্যবসা ছোটে ছিল। এখন একটু বড় হয়েছে। প্রতিদিন দোকান শেষে সন্ধ্যায় মুন্সীগঞ্জ শহরের বাড়িতে ফিরতাম। আজকেও একটি ব্যাগে করে গ্রাহকদের ৫০ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ২ লাখ টাকাসহ মোটরসাইকেল করে বাড়ি ফিরছিলাম। ভিটি হোগলা টানা সেতু এলাকায় এলে সিএনজিতে থাকা ৫ জন পুলিশ পথরোধ করে আমার নাম জিজ্ঞেস করে। নাম বলতেই হাতকড়া পড়ায়। আমার মাথায় হেলমেট দিয়ে আঘাত করে মোটরসাইকেলসহ ব্যাগটি ছিনিয়ে নেয়।

এ ব্যাপারে মুন্সীগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন দেব আমা‌দের কে বলেন, বিষয়টি আমরা জেনেছি। আমাদের পুলিশের একাধিক টিম এ বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে।

Previous articleডিবি পুলিশ পরিচয়ে ঈশ্বরদীর ব্যবসায়ীর ১১ লাখ টাকা ছিনতাই
Next articleজয়পুরহাটের আক্কেলপুরে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসায়ীর মাথা থেতলানো লাশ উদ্ধার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।