সোহেল রানা: কুমিল্লার চান্দিনায় ৪টি পরিবারকে চার দেয়ালে চার দিন বন্ধী করে রাখার অভিযোগ উঠেছে একই এলাকার মেম্বার ও প্রভাবশালী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে। ফলে ওই চারটি পরিবারের লোকজন মানবেতর জীবন যাপন করছে।

উপজেলার মাধাইয়া ইউনিয়নের বড় কলাগাঁও গ্রামের মুন্সি বাড়ির আব্দুল মতিন, মফিজ উল্লাহ, ইসমাইল ও আবু মুছার পরিবারকে স্থানীয় মেম্বার কাউছার, শাহজাহান মিয়ার ও প্রভাবশালী ব্যক্তিদের নির্দেশে বাঁশের ঝাড় ও বড়ই কাটায় বাড়ির চারপাশটি বের হওয়ার রাস্তা পুরোপুরি বন্ধ করে দেয় এলাকার লোকজন। পরিবার গুলোর দাবি রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ার পর থেকে, চরম মানবেতর জীবনযাপন করছে তারা। পরিবারের খাবার সংগ্রহের জন্য বাজারে যাওয়া ও বাড়ির বাচ্চারা সকালবেলা মক্তবে ও বিদ্যালয়ে যাওয়া সম্ভব হচ্ছেনা। প্রতিদিন সকালবেলা এলাকার উশৃংখল লোকজন বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বাড়ির আশপাশে ঘোরাফেরা করে, বাড়ি থেকে কাউকে বের না হতে ঘোষণা দিয়েছে অভিযুক্তরা। তবে খবর পেয়ে সরেজমিন পরিদর্শন করে অবরুদ্ধ অবস্থা নিরসন করেছে উপজেলা প্রশাসন।

ভুক্তভোগী প্রবাসী আবু মুছার স্ত্রী জানান, শনিবার ভোর রাতে তাদের বাড়িতে চোর আসার উপস্থিতি টেরপাই, পরে ঘর থেকে বের হলে স্থানীয় জহির নামের এক ব্যাক্তিকে দেখতে পেয়ে তাকে জিজ্ঞেস করলে চোর এসেছে বলে জানায়, আমি আমার ভাশুরকে বাহিরে ডেকে আনলে এসময় চার থেকে পাঁচ জন মিলে আমাকে বেধরক মারধর শুরু করে। পরে পরকীয়া সম্পর্কের অভিযোগ তুলে নাটক সাজিয়ে স্থানীয়দের খবর দেয় তারা। তিনি আরও বলেন, পূর্ব শত্রুতার জেরে আমার স্বামী প্রবাসে থাকার সুবাদে ষড়যন্ত্র করে মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানোর চেষ্টা চালাচ্ছে এবং স্থানীয় মেম্বারদের নির্দেশে ঘর বন্ধী করা হয়।

ভুক্তভোগী পরিবারগুলো জানান, চিৎকার চেঁচামেচি শুনে ঘর থেকে বেরিয়ে দেখি, ফয়েজুল, হাবীব, জহির, রিপন ও আলামিন সহ বেশ কয়েকজন মিলে আবু মুছার স্ত্রীর উপর শারীরিক নির্যাতন চালাচ্ছে, মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে পরকীয়ার অভিযোগ তুলে তারা। স্থানীয়দের মধ্যে কয়েকজন জানান, পরকীয়া প্রেমের বিচার না হওয়ায় স্থানীয় বর্তমান মেম্বার কাউছার ও প্রাক্তন মেম্বার শাহজাহান মিয়ার নির্দেশে তাদেরকে ঘর বন্ধী করা হয়।

এঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে, মাধাইয়া ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের মেম্বার কাউছার আলম বলেন, পরিবারগুলোকে ঘর বন্ধী করতে কাউকে কোন নির্দেশ দেওয়া হয়নি এ ব্যাপারে তিনি বুধবার সকালে জানতে পেরেছেন তবে তিনি কোন ব্যবস্থা নেননি।

প্রাক্তন মেম্বার শাহজাহান মিয়ার সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি জানান, গ্রাম বাসীর মতামতের ভিত্তিতেই তাদের বাড়িতে বেড়া দেওয়া হয়েছে, এতে তাহার সমর্থন রয়েছে।

এবিষয়ে চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাপস শীল জানান, সাংবাদিকদের মাধ্যমে খবর পেয়ে বুধবার সন্ধ্যায় সরজমিনে গিয়ে অবরুদ্ধ অবস্থা নিরসন করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Previous articleভূঞাপুরে স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর জোরপূর্বক বিয়ে, দুই ভাই গ্রেফতার
Next articleনোয়াখালীতে ৪ বিএনপি নেতা গ্রেপ্তার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।