ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার ছত্রাজিতপুর ইউনিয়নের ছত্রাজিতপুর বাজারের উত্তম ফার্মেসীর সামনে কানসাট টু চাঁপাইনবাবগঞ্জগামী মহাসড়কের উপর থেকে ২৪০ বোতল ফেন্সিডিলসহ ০২ জন শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার করে র‍্যাব-৫।

গ্রফতার কৃত আসামিরা হলেন ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলার আড়–য়া সোনারগাও গ্রামের মোঃ মহারাজ মীর ও মোছাঃ মোরসেদা বেগমের ছেলে মোঃ মাহাবুব মীর নয়ন (২৪) ও একই এলাকায় মোঃ ইব্রাহিম হাওলাদার ও মোছাঃ জাহানারা বেগমের ছেলে মোঃ হাসিব হাওলাদার (২২)।

র‍্যাব-৫একপ্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায় সিপিসি-১, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের র‍্যাব-৫এর একটি অপারেশন দল ০৫ নভেম্বর ২০২২ ইং তারিখ রাত ১১.৫৫ মিনিটের সময় গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার ছত্রাজিতপুর ইউনিয়নের ছত্রাজিতপুর বাজারের উত্তম ফার্মেসীর সামনে কানসাট টু চাঁপাইনবাবগঞ্জগামী মহাসড়কের উপর কোম্পানী অধিনায়ক লেঃ কমান্ডার রুহ-ফি-তাহমিন তৌকির এবং কোম্পানী উপ অধিনায়ক সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আমিনুল ইসলাম এর নেতৃত্ব্বে্ একটি মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে (ক) ২৪০ (দুইশত চল্লিশ) বোতল ফেন্সিডিল (খ) ০২(দুই)টি মোটর সাইকেল (গ) ০২(দুই)টি মোবাইল ফোন এবং (ঘ)০৩(তিন)টি সীমকার্ডসহ আসামী ১। মোঃ মাহাবুব মীর নয়ন (২৪), পিতা-মোঃ মহারাজ মীর, মাতা-মোছাঃ মোরসেদা বেগম, ২। মোঃ হাসিব হাওলাদার (২২), পিতা-মোঃ ইব্রাহিম হাওলাদার, মাতা-মোছাঃ জাহানারা বেগম, উভয় গ্রাম-আড়–য়া সোনারগাও, থানা-রাজাপুর, জেলা-ঝালকাঠিদ্বয়থকে হাতেনাতে গ্রেফতার করে।

জিজ্ঞাসাবাদে অভিনব কায়দায় বাইকের তেলের ট্যাংকে স্থাপন করে চাঁপাইনববাগঞ্জ থেকে ঢাকা নিয়ে যাওয়ার সময় র‍্যাবের চৌকষ অপারেশন দল তাদের আটক করে। তারা বাইকযোগে ঢাকা থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্ত এলাকায় ফেন্সিডিল সংগ্রহের জন্য আসছিল। এভাবে তারা দেশের সীমান্তবর্তী এলাকা হতে ফেন্সিডিল সংগ্রহ করে ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন অ লে ফেন্সিডিল খুচরা/পাইকারীভাবে সরবরাহ করত।

উপরোক্ত ঘটনায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ থানায় মামলা রুজু করা হয়।

Previous articleরাতে মারধর করল স্বামী, সকালে ফাঁস দিল গৃহবধূ
Next articleআউট হননি সাকিব
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।