সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০২৪
Homeসারাবাংলাকলাপাড়ায় ৫ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা শুরু

কলাপাড়ায় ৫ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা শুরু

মিজানুর রহমান বুলেট: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় ৫ দিন ব্যাপী বৈশাখী লোকজ মেলা শুরু হয়েছে। রবিবার সন্ধ্যা ৭টায় আনুষ্ঠানিক ভাবে মেলার উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও পটুয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ মোঃ মহিববুর রহমান।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম রাকিবুল আহসান, কলাপাড়া ইউএনও মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মোতালেব তালুকদার, সিনিয়র সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ শহিদুল ইসলাম বিশ্বাস, যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ মঞ্জুরুল আলম, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক অধ্যক্ষ ফাতেমা আক্তার রেখা, কলাপাড়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র মোঃ হুমায়ুন কবির প্রমূখ।

মেলার আয়োজক সূত্র জানায়, প্রতি বছরের মতো এবারও ঈদের দ্বিতীয় দিন থেকে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার মাঠে বসেছে বৈশাখী লোকজ মেলা। এতে বিভিন্ন সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে গ্রাম্য সংষ্কৃতি তুলে ধরার পাশাপাশি প্রতিদিন লোকজ ও বাউল গানের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া এবারের মেলায় দর্শনার্থীদের বাড়তি আনন্দ দিতে যোগ করা হয়েছে নাগর দোলা ও ডিজিটাল নৌকা দোলার খেলনা। রয়েছে ঘোড়া ও ট্রেন গাড়ির দোলনা।

মেলা উদ্বোধনের পর মাঠে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। এতে ছোট্ট সোনামনিদের সাথে অভিভাবকরাও উপভোগ করছে ঈদের আনন্দ। হরেক রকম পন্যের পশরা সাজিয়ে বসেছে দোকানীরা। মেলার উত্তর প্রান্তে ষ্টেইজে লোকজ ও বাউল গান পরিবেশন করছেন বাউল শিল্পিরা। মুগ্ধ হয়ে গান শুনছেন মেলায় ঘুরতে আসা দর্শনার্থীরা। কেহ আবার ব্যস্ত রয়েছেন বিভিন্ন ধরনের পন্য কেনা-কাটায়। এদিকে মেলা প্রাঙ্গনের দক্ষিণ পাশে আয়োজন করা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের খেলনার। বিকেল গড়ার সাথে সাথে বাড়তে শুরু করে দর্শনার্থীদের ভির। এরমধ্যে ছোট ছেলেমেয়েদের ভিড় ছিলো চোখে পড়ার মতো। অভিভাবকদের উপস্থিতিও ছিলো অনেক। ছেলে মেয়েদের সাথে তারাও আনন্দ উপভোগ করছেন।

মেলায় আগত দর্শনার্থী আরতি রানি জানান, মাইকিংয়ে মেলার কথা শুনে বাচ্চাদের নিয়ে ঘুরতে এসেছি। লোকসমাগম দেখে খুব ভালো লাগছে।

কলাপাড়া গার্লস কলেজের শিক্ষার্থী লামিয়া জানান, এবারের আয়োজনটা ভালো হয়েছে। বিশেষ করে অনেকগুলো রাইড আনা হয়েছে। কয়েকটি রাইডে উঠেছি, খুব ভালো লাগছে।

ডিজিটাল নৌকা দোলের টিকিট কাউন্টার রুহুল আমিন বলেন, আজ প্রথম দিনেই ভালো সাড়া পেয়েছি। আশা করছি আগামী কয়েকদিন অনেক লোকজনের সমাগম হবে।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, বৈশাখী মেলার মাধ্যমে গ্রাম বাংলার লোকজ সংষ্কৃতিকে তুলে ধরা হয়। প্রতি বছরই উপজেলা প্রশাসন বৈশাখী মেলার আয়োজন করে থাকে। এবছরও সেই ধারাবাহিকতা অব্যাহত রয়েছে। মেলায় ঘুরতে আসা দর্শনার্থীরা অনেক আনন্দ উপভোগ করতে পারবেন বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments