বাংলাদেশ ডেস্ক: ভারতের উত্তরাখণ্ডে তুষারধসের ঘটনায় আট দিন পেরিয়ে গেলও এখনও নিখোঁজ রয়েছেন ১৫৪ জন। তাদের উদ্ধারে কাজ করে যাচ্ছেন দেশটির সেনা ও বিমান বাহিনী। ক্ষীণ হচ্ছে নিখোঁজদের জীবিত পাওয়ার আশা।

বৈরী আবহাওয়া আর তীব্র শীত উপেক্ষা করেই চলছে উদ্ধার অভিযান। ধ্বংসস্তূপ ও সুড়ঙ্গের ভেতর থেকে একে একে বের করে আনা হচ্ছে মরদেহ।

রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) তপোবন বিদ্যুৎপ্রকল্পের সুড়ঙ্গ থেকে ছয়জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এছাড়া সাতজনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে পাশের রেনি গ্রাম থেকে। দুর্ঘটনার ৮ দিন পার হলেও এখনও নিখোঁজ রয়েছেন দেড় শতাধিক। প্রিয় মানুষকে জীবিত পাওয়ায় আশায় এখনও অপেক্ষায় নিখোঁজদের স্বজনরা। তাদের উদ্ধারে অভিযান জোরদারের কথা জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

গত ৭ ফেব্রুয়ারি সকালে উত্তরাখণ্ডের জোশীমঠের কাছে হিমবাহ ধসে ভয়াবহ জলোচ্ছ্বাসে ভেসে যায় গ্রামের পর গ্রাম। এমনকি সেতুও ভেঙে পড়ে। পাশাপাশি দুটি বিদ্যুৎকেন্দ্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এর মধ্যে একটি তপোবন-বিষ্ণুগড় বিদ্যুৎ কেন্দ্র।

Previous articleবাংলাদেশি গৃহকর্মী হত্যার দায়ে সৌদি গৃহকর্ত্রীর মৃত্যুদণ্ড
Next articleযে কোনো মুহূর্তে পদত্যাগ করতে প্রস্তুত মাহবুব তালুকদার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।