বাংলাদেশ ডেস্ক: কারাগারে থেকেই কয়েদি জানতে পারেন তার মৃত্যুদণ্ড বাতিল করা হয়েছে। ১৮ বছর আগে একটি হত্যা মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে বন্দি ছিলেন তিনি। সেখানেই হঠাৎ শাস্তি কমানোর খবরের আনন্দে হার্ট অ্যাটাক করে মারা গেছেন তিনি। ইরানের রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত হামশাহরি পত্রিকা মঙ্গলবার এই খবর প্রকাশ করেছে।

পত্রিকাটি বলেছে যে ৫৫ বছর বয়সী আকবর, দক্ষিণ ইরানের বাসিন্দা, ১৮ বছর আগে পূর্বপরিকল্পিত হত্যার অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

খবরে বলা হয়, ভুক্তভোগীর পরিবার তাকে ক্ষমা করে দিয়েছে। ফলে আর মৃত্যুদণ্ডের সম্মুখীন হতে হবে না জানার পর ‘অতি আনন্দিত’ হয়ে হার্ট অ্যাটাক করেন আকবর এবং মারা যান।

আকবরের পরিচিত একটি সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, ৩৭ বছর বয়সে হত্যাকান্ডের অভিযোগে মৃত্যুদন্ডের শাস্তি হয়েছিলো তার। এর আতঙ্কের মধ্যে এতগুলো বছর কাটিয়েছিলেন তিনি।

সূত্রগুলি যোগ করেছে যে প্রাদেশিক বিরোধ নিষ্পত্তি বোর্ডের কর্মকর্তারা ভুক্তভোগীর পরিবারকে তাকে ক্ষমা করতে রাজি করাতে সক্ষম হয়েছিল, কিন্তু মুক্তি পাওয়ার আগেই তিনি মারা যান।

সূত্র : মিডলইস্ট মনিটর

Previous articleভূঞাপুরে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা
Next articleভারতে পাচারের শিকার দুই নারীকে বেনাপোল দিয়ে দেশে ফেরত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।