কাগজ ডেস্ক: অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির মামলা করায় মাদরাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যার সাথে জড়িতদের বিচার চেয়ে বিবৃতি দিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার বিষয়ক সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)। একইসাথে এ ঘটনায় দ্রুত পূর্ণাঙ্গ তদন্ত দাবি করেছে সংস্থাটি।

সংগঠনটির দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক পরিচালক মীনাক্ষি গাঙ্গুলি এক বিবৃতিতে এ দাবি করেন। সংগঠনটির নিজস্ব ওয়েব সাইটে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

মীনাক্ষি গাঙ্গুলি বলেন,‘ন্যায়বিচার চেয়েছিলেন নুসরাত। সাহসী এই মেয়েটিকে ভয়াবহভাবে হত্যা করা হয়েছে। যৌন নির্যাতনের শিকার নারী ও মেয়েদের বিষয়ে বাংলাদেশ সরকার কতটা ব্যর্থ তা ফুটে উঠেছে এর মাধ্যমে। এই হত্যার মধ্য দিয়ে এটা জোরালো হয়ে উঠেছে যে, বাংলাদেশ সরকারকে যৌন নির্যাতনের শিকার নারীদের বিষয়কে গুরুত্ব দিতে হবে। একইসাথে এটা নিশ্চিত করতে হবে যে, নির্যাতিতরা নিরাপত্তার সাথে যেন আইনগত সমাধান পান। তাদেরকে প্রতিশোধের শিকার হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করতে হবে।’

সংস্থাটি আরো বলছে, গত ২৭ শে মার্চ নুসরাত যখন পুলিশে অভিযোগ করতে চান- তখনকার একটি ভিডিওতে দেখা যায়, থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তাকে বলছেন, ঘটনাটি তেমন বড় কিছু নয়। এর পরপরই অভিযুক্তের সমর্থকরা নুসরাতকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে।

তার পরিবারের সদস্যরা মিডিয়াকে বলেছেন, হামলার আগে তাদেরকে মামলা তুলে না নিলে হত্যার হুমকি দেয়া হয়। কিন্তু নুসরাত ন্যায় বিচারের জন্য দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ছিলেন।

তার ভাই বলেছেন, ৬ই এপ্রিল হামলার পর নুসরাত তার পরিবারকে বলেছেন, হামলাকারীরা প্রিন্সিপালের বিরুদ্ধে করা মামলা তুলে নেয়ার দাবি জানিয়েছে। তিনি এতে রাজি না হওয়ায় তার গায়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে তারা।

Previous articleপাবনায় ধর্ষণ চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে স্কুলছাত্রীকে ছুরিকাঘাত
Next articleউল্লাপাড়ায় বৈশাখী উৎসবে দু’স্থানে জমেছিলো প্রাণের মেলা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।