তিস্তা হচ্ছে না, চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব্যবহারের সুযোগ পাচ্ছে ভারত

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আসন্ন দিল্লি সফরে ভারতের জন্য চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব্যবহারের বিধি-বিধান (স্টান্ডার্ড অপারেশন প্রসিডিউর-এসওপি) সই হবে। এছাড়া ফেনী, ধরলা, দুধকুমার, মনু, খোয়াই, গোমতী ও মুহুরী নদীর পানিবণ্টন নিয়ে একটি রূপরেখা চুক্তি নিয়ে আলোচনা হবে। তবে তিস্তার পানি বন্টন নিয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো চুক্তি এই সফরে হচ্ছে না।

প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের ওপর আলোকপাত করে বুধবার দুপুরে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ সব কথা জানানো হয়। চারদিনের সফরে প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল দিল্লি যাচ্ছেন। সফরকালে তিনি বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের আয়োজনে ভারতীয় অর্থনৈতিক সম্মেলনে যোগ দেবেন। ৩ ও ৪ অক্টোবর দিল্লিতে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। ৫ অক্টোবর ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিানর দ্বিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। সফরকালে তিনি ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ ও ভারতীয় কংগ্রেসের সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধির সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করবেন। ভারতীয় অর্থনৈতিক সম্মেলনে যোগ দিতে দিল্লিতে আসা সিঙ্গাপুরের উপ-প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রী হং সো কিয়াত শেখ হাসিনার সাথে সাক্ষাত করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আব্দুল মোমিন জানান, বাংলাদেশ ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী পর্যায়ের দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে পর যুব ও ক্রীড়া, সংস্কৃতি, নৌ-পরিবহন, অর্থনীতি, সমুদ্র গবেষণা, পণ্যের মান নির্ধারন, বাণিজ্য, শিক্ষা, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠাসহ বিভিন্ন খাতে ১০ থেকে ১২টি সমঝোতা স্মারক সই হতে পারে।