বাংলাদেশ প্রতিবেদক: আগামী ২৫ শে জানুয়ারির মধ্যে দেশে আসছে করোনার টিকা। দেশে আসার ১ সপ্তাহের মধ্যে তার প্রয়োগ শুরু করতে সব প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সোমবার (১১ জানুয়ারি) বিকেলে অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, ২৬ জানুযারি থেকে টিকা দিতে শুরু হবে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া। প্রথম দফায় দেয়া হবে অর্ধকোটি ডোজ টিকা।

করোনার টিকা দেশে আসা নিয়ে সৃষ্ট ধ্রুমজাল কেটে যাওয়ার পর বেশ গতি পায় অন্যান্য কার্যক্রম। করোনার টিকা প্রয়োগ বিধিমালায় চূড়ান্ত অনুমোদন দেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। কখন, কাদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দেয়া হবে টিকা, সেটি জানাতে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

সেখানে জানানো হয়, আগামী ২১-২৫ জানুয়ারির মধ্যে ভারত থেকে দেশে আসবে সেরাম ইনস্টিটি্উটের টিকা। প্রথম দফায় দেশে আসবে ৫০ লাখ টিকা। দ্বিতীয় দফায় আসার আগ পযর্ন্ত ২৫ লাখ করে ২ মাসে ব্যবহারের প্রস্তুতি থাকলেও নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৫০ লাখ ডোজই ব্যবহার করা হবে প্রথম মাসে। টিকা দেশে আসার ৭ দিনের মধ্যে শুরু হবে প্রয়োগের কাজ।

অধিদপ্তরের মহাপরিচারক প্রফেসর এবিএম খুরশিদ আলম জানান, বেক্সিমকো ফার্মা তাদের জানিয়েছে ভারত থেকে ২১-২৫ জানুয়ারির মধ্যে যে কোন দিন টিকা দেশে পৌঁছাবে৷

প্রথম দফায় আসা টিকা পাওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবে স্বাস্থ্যকর্মী সহ সম্মুখভাগের যোদ্ধারা। এর মধ্যে সরকারী জরুরি কাজে নিয়োজিতদের পাশাপাশি রয়েছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, জনপ্রতিনিধিরাও। গুরুত্ব দেয়া হবে বয়স্ক ব্যক্তিদেরও। ২৬ শে জানুয়ারি থেকে শুরু হবে রেজিস্ট্রেশান প্রক্রিয়া।

অতিরিক্ত মহাপরিচালক মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, সব ধরনের প্রস্তুতিই নেয়া হচ্ছে। বাকি সিদ্ধান্তগুলো নেয়া হবে টিকা হাতে পাওয়ার পর।

টিকার জন্য এর মধ্যে জেলা উপজেলায় সংরক্ষণাগার তৈরির কাজ চলছে। যে কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ারোধে কাজ করবে ভ্রাম্যমান মেডিকেল টিম।

Previous articleশিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে লিগ্যাল নোটিশ
Next articleবিকাশ প্রতারকচক্রের তিন সদস্য গ্রেপ্তার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।