বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের ১০ মাসের অপেক্ষা ফুরোল। সাকিব আল হাসানের জন্য অপেক্ষাটা আরো দীর্ঘ ছিল। তিনি মাঠে ফিরেছেন প্রায় ১৬ মাস পর। তবে টাইগার অলরাউন্ডারের প্রত্যাবর্তনটা হল রাজসিক। ফিরেই হয়েছেন ম্যান অব দ্য ম্যাচ।

জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করায় ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে সবধরণের ক্রিকেটীয় কার্যক্রম থেকে এক বছরের নিষেধাজ্ঞা পান সাকিব। গেল বছরের সেপ্টেম্বরে সেই নিষেধাজ্ঞা কাটে। তবে করোনা ভাইরাসের আক্রমণে ততদিনে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত গোটা বাংলাদেশ। ফলে মাঠে ফেরা হচ্ছিল না কারোই।

এরপর বঙ্গবন্ধু প্রেসিডেন্টস কাপের মাধ্যমে ক্রিকেটের মাঠে টাইগার বরপুত্রের আগমন। তবে সেখানে তার পারফরম্যান্স মন জোগাতে পারেনি কারো।

নিজের সেরা ছন্দটা হয়তো সাকিব তুলে রেখেছিলেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মঞ্চের জন্য। তার আগে প্রস্তুতি ম্যাচে ফিফটি হাঁকিয়ে দিয়েছিলেন ছন্দে ফেরার আভাস। এরপর মূল মঞ্চে এসে ঠিকই সব আলো কেড়ে নিলেন সাবেক বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

উইন্ডিজদের বিপক্ষে ১ম ম্যাচেই তার দাপট। বল হাতে গুঁড়িয়ে দিয়েছেন ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং লাইনআপ। তার স্পিনজাদুতে বিভ্রান্ত করেছেন সফররতদের। বোলিং ফিগারটা দেখুন, ৭.২-২-৮-৪। মাত্র ৮ রানে ৪ উইকেট! ক্যারিবিয়ানরা ধসে পড়ে ওখানেই।

মাত্র ১২২ রানে উইন্ডিজদেরকে গুটিয়ে দেয়ার মূল কারিগর সাকিব। যে রান টপকাতে খুব একটা বেগ পেতে হয়নি টাইগারদেরকে।

৪-এ ব্যাটিংয়ে নেমে বড় ইনিংসের আভাস দিয়েছিলেন এই অলরাউন্ডার। যদিও ইনিংস বেশি লম্বা করতে পারেননি। ৪৩ বলে খেলেছেন ১৯ রানের ইনিংস।

লো স্কোরিং ম্যাচে ৪ উইকেট আর ১৯ রান নিয়ে সাকিব আল হাসানই ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কারটা বাগিয়ে নিলেন।

Previous articleশেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলা: রাষ্ট্রপক্ষের যুক্তিতর্ক উত্থাপন শেষ
Next articleপ্রসবের ৭ দিন পর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার, পলাতক যুবলীগ নেতা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।