বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ‘লাইভে না এসে পারলাম না। সিরিয়াসলি আমি অতিষ্ঠ হয়ে গেছি। এটা ২০২১ সাল ভাই। প্রত্যেকটা মানুষের জীবনে প্রেম থাকতেই পারে। অনেক উল্টা-পাল্টা অনেক কিছুই হয়। মানুষের অনেক অতীত থাকে। সবার জীবনেই অতীত আছে।’

নিজের ফেসবুক লাইভে এমনটাই বলেন ক্রিকেটার নাসিরের সাবেক প্রেমিকা হুমায়রা সুবাহ।

তিনি আরও বলেন, ‘আমার অতীত ২০১৮ সালেই শেষ। কেন আপনারা নাসির আর তার স্ত্রীর বিয়ের ছবি আমাকে পাঠাচ্ছেন। আমার সঙ্গে তার সবকিছু শেষ হয়ে গেছে। এখন চলছে ২০২১ সাল। অতীতকে নিয়ে টানাটানি করবেন না। অন্যের জীবনকে অতিষ্ঠ করবেন না।’

কী জন্য আপনারা নাসির নাসির করছেন? প্রশ্ন রেখে সুবাহ আরও বলেন, ‘ব্রেকআপের পরে আমি সিনেমা, মডেলিং ও পরিবার নিয়ে ভালো আছি। নাসির বিয়ে করছে ভালো কথা। আমি জানি ও বিয়ে করবে, তো কি হইছে? দুদিন পর আমিও বিয়ে করব। আমরা দুজন দুদিকে সরে গেছি। আর কি চান আপনারা? আমার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে চিন্তা না করে আপনারা নিজের চরকায় তেল দেন।’

লাইভে অতীত নিয়ে টানাটানি না করার অনুরোধ একাধিকবার করেন সুবাহ। এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে সুবাহ বলেন, ‘আমরা নায়িকা, আমরা মডেল আমাদের একটা দুইট বয়ফ্রেন্ড থাকতেই পারে। আপনাদের সমস্য কি? দুইদিন পর আমি বিয়ে করলে কি আমার ছবি নাসিরকে পাঠাবেন? আজব তো!’

আমি প্রেম করলেও ওপেন করি, বিয়ে করলেও ওপেন করব উল্লেখ করে উত্তেজিত সুবাহ আরও বলেন, ‘চুপচুপ করে আমি কিছু করব না। আপনাদের সমস্যা কি? নিজেদের চরকায় তেল দেন। ফেসবুকে বুলিং করা ছাড়েন। যারা ফেসবুকে আমার কাছে নাসিরের ছবি পাঠাইছেন, উল্টা-পাল্টা কমেন্টস করছেন সবার নামে আমি সাইবার ক্রাইমে মামলা দিব। খবরদার আমাকে নাসিরের ছবি পাঠাবেন না।’

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও তামিমা তাম্মি। ১৫ ফেব্রুয়ারি নিজের ফেসবুকে লাইভে এসে এসব কথা বলেন সুবাহ। নাসিরের বিয়ের পর জানা গেল, আগের স্বামী রাকিবকে ডিভোর্স না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেন তাম্মি। এ নিয়ে বিয়ের পর থেকেই আলোচনা-সমালোচনার মুখে নাসির ও তার স্ত্রী।

Previous articleপাপুলের এমপি পদ বাতিল
Next articleমুরগির মাংস খেয়ে ৫ জনের মৃত্যু, কয়েকশ অসুস্থ!
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।