বাংলাদেশ ডেস্ক: গত বছর রমজান মাসে ইসলাম গ্রহণ করেন দক্ষিণ আফ্রিকার তরুণ অলরাউন্ডার বিয়র্ন ফরটুইন। আর ইসলামে দীক্ষিত হওয়ার ক্ষেত্রে তাকে সহযোগিতা করেন স্ত্রী মিশকে এয়সেন।

কিন্তু কিভাবে স্ত্রী তাকে আলোর পথে নিয়ে আসলেন, সে সম্পর্কে রয়েছে দারুণ একটি গল্প।

জানা যায়, মিশকে এয়সেন আর বিয়র্ন ফরটুইনের মাঝে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু তারা পরস্পরে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হতে পারছিলেন না। কারণ, মিশকে এয়সেন ছিলেন একজন মুসলিম।

মিশকে এয়সেন চাচ্ছিলেন বিয়র্ন ইসলাম গ্রহণের পরই তাকে বিয়ে করুক। পরে ঠিক এমনটিই হলো। প্রোটিয়া ক্রিকেটার ইসলাম সম্পর্কে জানাশোনা করে মুসলিম হওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন।

পরে এর কিছুদিন পরই গত বছরের এপ্রিলের শেষ দিকে বেশ জাঁকজমকপূর্ণভাবে তাদের বিয়ে হয়। পরে স্ত্রী মিশকে এয়সেন তাদের বিয়ের বেশ কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করে সবার কাছে শুভ কামনা চান।

তাতে লিখেন, ‘আমরা এখন নিয়মতান্ত্রিকভাবে মি. অ্যান্ড মিসেস ফরটুইন হয়ে গেলাম।’

বিয়র্ন ফরটুইন ইসলামে দীক্ষিত হওয়ার পর নিজের নাম রাখেন ইমাদ। এ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ১টি একদিনের ও ১৩টি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন।

সূত্র : ডেইলি জং

Previous articleদেশে করোনায় শনাক্ত বেড়েছে
Next articleশর্ট সার্কিটের আগুনে পুড়লো দুটি দোকানসহ প্রায় ৫’শ সড়ক বাতি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।