রবিউল ইসলাম খান: লক্ষ্মীপুরে পুলিশের সাথে যুবলীগের সংর্ঘের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় কারাগারে থাকা ১০ যুবলীগ নেতার জামিন মঞ্জুর করেছে আদালত। আজ রোববার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে জামিন প্রার্থনা করলে বিচারক মুনছুর আহমেদ জামিন মঞ্জুর করে। আসামীদের পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এ্যাড: রাসেল মাহমুদ মান্না তিনি জামিনের বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন। কারাগারে আটক ও জামিনপ্রাপ্তরা হলেন, যুবলীগ নেতা মাহাবুবুল হক মাহবুব, রুপম হাওলাদার, ইকবাল হোসেন হিমেল ক্বারী, মিজানুর রহমান, আশিক মাহমুদ, আকিব খাঁন, রেজাউল ইসলাম, সাইফুদ্দিন, আজগর আলী ও মোহাম্মদ আলী। তারা সবাই উপজেলা ও পৌর যুবলীগের কমিটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা বলে জানিয়েছে জেলা সভাপতি একে এম সালাহ উদ্দিন টিপু। এর আগে গত ২ জানুয়ারী বুধবার রাতে সদর থানার এসআই আবদুল আলীম বাদী হয়ে যুবলীগের ২৪ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে আরো ৪০/৫০জনকে অজ্ঞাত আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেন। উল্লেখ যে, গত ২ জানুয়ারী বুধবার সকালে সদর উপজেলার লাহারকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান ও একই এলাকার দেলোয়ার হোসেনের সঙ্গে এলাকায় মারামারির ঘটনা ঘটে। পরে দু’জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে আওয়ামী লীগ নেতাকে দেখতে জেলা যুবলীগের সভাপতি এ কে এম সালাহ উদ্দিন টিপু নেতাকর্মীদের নিয়ে হাসপাতালে যান। এসময় টিপুর সঙ্গে থাকা নেতাকর্মীরা হাসপাতালে দেলোয়ারকে মারধর করে। এসময় বাধা দিতে গেলে তারা পুলিশের ওপর হামলা করে। একপর্যায়ে পুলিশ-যুবলীগ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় ৪ পুলিশ সদস্যসহ ১০ জন আহত হয়। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে সদর হাসপাতাল ও জেলা যুবলীগের দলীয় কার্যালয়সহ বিভিন্ন স্থান থেকে ১০ যুবলীগের

নেতাকর্মী কে আটক করে। পরে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার পর আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করে পুলিশ।