নামাজরত অবস্থায় বৃদ্ধাকে কুপিয়ে হত্যা

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নাটোরের গুরুদাসপুর পৌর সদরের পারগুরুদাসপুর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মুক্তিযোদ্ধা হাতেম আলীর (৭২) স্ত্রী মনোয়ারা বেগমকে (৬২) কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।
আজ বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজ পড়ার সময় হত্যাকাণ্ডের শিকার হন তিনি।
পরিবার জানিয়েছে, ভোর ৬টার দিকে প্রতিদিনের মতো ফজরের নামাজ পড়ার জন্য মসজিদে যান হাতেম আলী। এ সময় তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগমও নামাজ পড়েন। কিছুক্ষণ পর তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরিবার ও প্রতিবেশীরা মনোয়ারাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
পুলিশ জানিয়েছে, নিহত মনোয়ারার গলায় স্বর্ণের চেইন ছিল। নামাজে দাঁড়ালে তার চেইনটি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে কেউ। মনোয়ারা চিনে ফেলায় তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করা হয়। খুনি দূরের কেউ নয়, বরং নিহতের আত্মীয়দের মধ্যেই কেউ বলে ধারণা করছে পুলিশ।
গুরুদাসপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আনারুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গলার চেইন হত্যার মূল মোটিভ নয়। কারণ অনুসন্ধান করা হচ্ছে।
নাটোর পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, ‘হত্যার রহস্য উদঘাটনে কাজ চলছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ নাটোর মর্গে পাঠানো হয়েছে।’