কলাপাড়ায় শেখ কামাল সেতুর উত্তর পাড়ে এখন অবৈধ পার্কিং স্পট

এস কে রঞ্জন: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় শেখ কামাল সেতুর উত্তর পাড় এখন গাড়ীর অবৈধ পার্কিং স্পট হিসাবে ব্যবহৃত হচ্ছে। এখানে প্রতিদিন অটো, ভাড়ায় চালিত হোন্ডা, কুয়াকাটা গামী বাস সহ বিভিন্ন যানবাহন পার্কিং করে যাত্রী ওঠানামা করায় সাধারন যাত্রীদের বিড়ম্ভনায় পরতে হচ্ছে। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়,শেখ কামাল সেতুর পাশ থেকে কলাপাড়া পৌড়শহরে ঢোকার সংযোগ সড়ক থাকার কারনে গাড়ি টার্নিং নিতে গিয়ে এখানে প্রায় প্রতিনিয়ত ঘটে যাচ্ছে দুর্ঘটনা।এব্যাপারে পথচারী ও ব্যাক্তিগত গাড়ি চালকরা জানান, প্রতিনিয়ত আমরা এখান থেকে যাতায়াত করি কিন্তু এখানে আসলেই আমাদের যানজটের বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। কারন এখানে দিনের শুরুতেই অনেকগুলো ব্যাটারী চালিত অটো, ভারায় চালিত মটর সাইকেল সহ অনেক সময় বাস গাড়ী পার্কিং করে যাত্রী ওঠানামা করে। এ কারনে আমরা চলতে গিয়ে অনেক সময় দুর্ঘটনায় কবলিত হওয়ার আশংকায় থাকি। কারন বড় গাড়ি পার্কিং করা থাকলে এপাশ ওপাশ কিছুই দেখা যায় না।দেশের পর্যটন শিল্পের উন্নয়নের কথা চিন্তা করে কলাপাড়া থেকে পর্যটন নগরী কুয়াকাটা পর্যন্ত শেখকামাল, শেখজামাল ও শেখরাসেল সেতু তিনটি নির্মান করা হয়। যাতে পর্যটকরা নির্বিঘ্নে কুয়াকাটায় যেতে পারে। কিন্তু অনিয়ন্ত্রিত গাড়ি পার্কিংয়ের কারনে পর্যটকদের নির্বিঘ্নে যাওয়া অসম্ভব হয়ে পরছে। তাই দ্রুত অবৈধ পার্কিং বন্ধ করতে না পারলে পর্যটকদের মনে বিরুপ প্রভাব সৃস্টি হয়ে পর্যটন শিল্প মুখ থুবরে পরার সম্ভাবনা রয়েছে।

এবিষয়ে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোহাম্মাদ শহিদুল হক বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমি কলাপাড়া পৌর মেয়র ও থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নিবো।