বাউফলে পুলিশের ভয় দেখিয়ে ভাইকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা

অতুল পাল: পটুয়াখালীর বাউফলের দাসপাড়া ইউনিয়নে পুলিশের ভয় দেখিয়ে ঘরের বাহিরে এনে বেল্লাল (২৬) নামের একজনকে কুপিয়ে পানিতে ফেলে দিয়েছে তার চাচাতো ভাইয়েরা। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক তাকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন। আজ শনিবার দুুপুর ১২ টার দিকে উপজেলার দাসপাড়া ইউনিয়নের খাজুরবাড়ীয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।
স্থানীয়রা জানায়, দাসপাড়া ইউপির ৩ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা দুই ভাই কাশেম ও হাসেম খানের মধ্যে পৈত্রিক সম্পত্তির ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরাধ চলে আসছিল। সপ্তাহখানেক আগে হাসেম খানের ছেলেরা চাচি মিনারা বেগমকে মারধর করে একটি হাত ভেঙ্গে দিলে কাশেম খানের ছেলেরা চাচা হাসেম খানকে মারধর করে। আজ দুপুর ১২টার দিকে প্রতিবেশী ফিরোজের মেয়ে ফারজানা (১২) কাশেম খানের ঘরে গিয়ে পুলিশ আসছে বললে ঘরে থাকা বেল্লাল ও হেলাল ভয়ে ঘর ছেড়ে পালানোর জন্য দৌড়াতে থাকে। জন্য ষ্টা করে। এসময় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা চাচাতো ভাই হাসান, জাফর, মাশারাফি ও ফরিদ একত্রে বেল্লালকে ধরে ফেলে এবং ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে পাসের ধান ক্ষেতে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা বেল্লালকে উদ্ধার করে বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে জরুরী বিভাগের ডাক্তার মাহিন বিন কাশেম প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ডাক্তার মাহিন বিন কাশেম জানান, ধারালো অস্ত্র দিয়ে বেল্লালের মাথা ও গলাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। তার অবস্থা সংকটাপন্ন। তাই বরিশাল পাঠানো হয়েছে। এখনো পর্যন্ত কোন পক্ষ থানায় অভিযোগ জানায়নি।