উল্লাপাড়ায় পুত্রবধূর চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় শশুর আটক

সাহারুল হক সাচ্চু: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় যৌতুকের দাবিতে নিজ পুত্রবধুকে মারপিটের পর চুল কেটে দেওয়ায় শ্বশুর মোঃ হবিবুর রহমানকে আজ মঙ্গলবার আটক করেছে মডেল থানা পুলিশ। এদিকে গতকাল সোমবার রাতে মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ দীপক কুমার দাস পিপিএম সিরাজগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা গৃহবধু মোছাঃ নার্গিস খাতুনকে দেখতে যান। উল্লাপাড়া উপজেলার উধুনিয়া ইউনিয়নের মহেশপুর গ্রামের মোঃ শফিকুল ইসলামের স্ত্রী দু’সন্তানের জননী নার্গিস খাতুনকে তার শশুর মোঃ হবিবুর রহমান যৌতুকের দাবী করে নির্যাতন চালিয়ে আসছিলো। গত রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাতে স্বামী বাড়ীতে না থাকার সুযোগে শশুরসহ পরিবারের অন্যরা মারপিট এবং কাচি দিয়ে গৃহবধুটির মাথার চুল কেটে দেয়। পরে স্বামী মোঃ শফিকুল ইসলাম গ্রামবাসীদের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসায় ভর্তি করে। এদিকে উল্লাপাড়া মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ দীপক কুমার দাস পিপিএম এ ঘটনা জেনে রাতে সিরাজগঞ্জ হাসপাতালে গিয়ে গৃহবধুটির চিকিৎসার খোজ খবর নেন। তিনি গৃহবধুটির উপর নির্যাতন ও চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় আনার আশ্বাস দেন বলে জানা যায় । উল্লাপাড়া মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ দীপক কুমার দাস পিপিএম জানান আজ মঙ্গলবার গৃহবধুটির শশুড় মোঃ হবিবুর রহমানকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া কেটে দেওয়া চুল ও অন্যান্য আলামত উদ্ধার করা হয়েছে। প্রতিবেদন লেখাকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ছয়টা অবধি থানায় মামলা হয়নি। তিনি আরো জানান, নির্যাতিত গৃহবধু কিংবা তার পক্ষে কেউ এসে অভিযোগ কিংবা মামলা দিলে তা নেওয়া হবে।