ভূঞাপুরে ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ডেকে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ১

আব্দুল লতিফ তালুকদার: টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে এবার চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। উপজেলার অর্জুনা ইউনিয়নে দূর্গম চরাঞ্চল বাসুদেবকোল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষক ওই গ্রামের সিরাজ আলীর ছেলে গোলাম মোস্তফা (৫০) ও ইউসুফ আলীর ছেলে ইসমাইল হোসেন (৪০)। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে গোলাম মোস্তফা ও ইসমাঈলের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) বিকালে মামলা দায়ের করে। পরে পুলিশ দ্রুত সময়ের মধ্যে গোলাম মোস্তফাকে গ্রেপ্তার করে।

পুলিশ ও ছাত্রীর পরিবার জানায়, গেল ৫ অক্টোবর দুপুরে উপজেলার অর্জুনা ইউনিয়নে বাসুদেবকোল গ্রামের ইসমাইল হোসেন ওই ছাত্রীকে নিজের বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। এসময় তার সাথে যোগ দেয় গোলাম মোস্তফা। বাড়ি ফাঁকা থাকায় তারা দু'জনে মিলে শিশুটিকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। কাউকে কিছু বললে মেরে ফেলার হুমকি দেয়া হয় তাকে। আজ বৃহস্পপতিবার (৮ অক্টোবর) সকালে শিশুটির পেটে ব্যথা অনুভব হলে মা-বাবার কাছে সব কিছু

খুলে বলে। পরে বৃহস্পতিবার বিকালে মেয়ের বাবা বাদি হয়ে গোলাম মোস্তফা ও ইসমাইলের বিরুদ্ধে ভূঞাপুর থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ গোলাম মোস্তফাকে গ্রেপ্তার করে।

এবিষয়ে ভূঞাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মো. রাশিদুল ইসলাম বলেন, চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় গোলাম মোস্তফা ও ইসমাইলের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে মোস্তফাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ইসমাইলকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।